অগ্রণী ব্যাংকের ডাটা এন্ট্রি অপারেটরের জালিয়াতি

    0
    229

    আমার সিলেট  24 ডটকম,০৬নভেম্বরঃ মৌলভীবাজার জেলার  শ্রীমঙ্গল উপজেলা শহরের  অগ্রণী ব্যাংকের ডাটা এন্ট্রি  সুপাভাইজার জাকারিয়া লস্কর সফ্‌টওয়্যার টেম্পারিং করে ব্যাংকের প্রায় ৭০ লাখ টাকা তুলে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ প্রাথমিক তদন্তে এর সত্যতা পান। তদন্ত অব্যাহত।জালিয়াতির পরিমাণ কোথায় গিয়ে ঠেকে এখনও কেউ বলতে পারছেন না। ব্যাংক ব্যবস্থাপকের দাবি এ টাকা কোন গ্রাহকের নয়। এদিকে মামলা হওয়ার পর থেকে অভিযুক্ত কর্মকর্তা পলাতক রয়েছেন। ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা এভাবে দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়ায় অন্যান্য শাখার ম্যানেজারিয়াল পদের  অধিকারীরা দুশ্চিন্তায় আছেন।কর্মকর্তা বলেন, প্রথমে ঘটনা ধরা পড়ে অক্টোবরে, তারপর মামলা হয় নভেম্বরে। জাকারিয়াকে পালিয়ে যাওয়ার সুযোগ দিতে মামলা করতে দেরি হওয়ার কারণ থাকতে পারে।  তবে আরেক কর্মকর্তা বলেছেন, তিনিই যে এই কাজ করেছেন তা নিশ্চিত হতে দেরি হয়। কারণ সফ্‌টওয়্যার প্রকৌশলীর সহযোগিতা নেয়া ছাড়া সিদ্ধান্ত নেয়া যাচ্ছিল না। অগ্রণী ব্যাংক শ্রীমঙ্গল শাখার ব্যবস্থাপক স্বপন কুমার সরকার জানান, অভিযুক্ত জাকারিয়া লস্কর ব্যাংকের বিভিন্ন হেড থেকে নিজের এবং আরও কিছু একাউন্টে ভুয়া জমা করে বিভিন্ন চেকের মাধ্যমে ৬৯ লাখ ৬৯ হাজার টাকা তুলে নেয়ার কিছু তথ্য পেয়েছেন তদন্তকারীরা। এখনও তদন্ত চলছে। তদন্ত করছেন ঊর্ধ্বতন অফিস কর্মকর্তারা। তদন্ত শেষ হলেই প্রকৃত চিত্র পাওয়া যাবে বলে এক কর্মকর্তা জানান।