আজ ২৫ ডিসেম্বর খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের শুভ বড়দিন

    0
    222

    ” পাঁচতারকা হোটেলগুলো প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে কয়েক দিন আগেই। শ্রীমঙ্গলের “গ্র্যান্ড সুলতান টি রিসোর্ট এন্ড গলফ”  নামের প্রতিষ্ঠানটি খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় উৎসবের দিন হওয়ায় করেছে ব্যাপক আয়োজন “

    আমারসিলেট24ডটকম,২৫ডিসেম্বরঃ  আজ বুধবার ২৫ ডিসেম্বর, শুভ বড়দিন। এদিন যিশুখ্রিস্ট মাতা মেরির গর্ভে জন্মগ্রহণ করেন। সে কারণে বড়দিন খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের সবাই সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব হিসেবে পালন করে আসছে।ডিসেম্বর মাস শুরু হলেই এ সম্প্রদায়ের মানুষের মধ্যে উৎসবের সাড়া পড়ে যায়। এ উপলক্ষে গির্জা ও বড় বড় হোটেল নতুন সাজে সেজেছে।

    দিনটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়া পৃথক বাণীতে খ্রিস্টান সম্প্রদায়কে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

    রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বলেন, মহান সৃষ্টিকর্তার মহিমা প্রচার, পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ ও ভালোবাসার মাধ্যমে বিশ্বকে মানুষের শান্তির আবাসভূমিতে পরিণত করতে যিশুখ্রিস্ট ছিলেন অন্যতম।

    প্রধানমন্ত্রী তার বাণীতে বলেন, শোষণমুক্ত সমাজব্যবস্থা প্রবর্তনের জন্য পৃথিবীতে ন্যায় ও শান্তি প্রতিষ্ঠা করাই ছিল যিশুখ্রিস্টের অন্যতম ব্রত।বড়দিন উপলক্ষে আজ দেশের গির্জা ও বড় বড় হোটেলগুলো সেজেছে নতুন সাজে।

    সারা দেশের মত শ্রীমঙ্গলের  খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের মধ্যেও  বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ। বড়দিনের শুভেচ্ছা জানাতে হবে, তাই বিভিন্ন কার্ডও ফুলের দোকানগুলোয় ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।

    এদিকে বড়দিনের জন্য কেকের ফরমায়েশ নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে খ্যাতনামা বেকারি ও কেকের দোকানগুলো। বাসাবাড়ি আর গির্জাগুলোকে রঙিন বাতি আর ফুল দিয়ে সাজানো হয়েছে।

    পাঁচতারকা হোটেলগুলো প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে কয়েক দিন আগেই। শ্রীমঙ্গলের “গ্র্যান্ড সুলতান টি রিসোর্ট এন্ড গলফ”  নামের প্রতিষ্ঠানটি খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় উৎসবের দিন হওয়ায় করেছে ব্যাপক আয়োজন ।অন্যদিকে,প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেল, রূপসী বাংলা হোটেল, র‌্যাডিসন ওয়াটার গার্ডেন, দ্য ওয়েস্টিন হোটেলসহ আরও কয়েকটি হোটেল সাজানো হয়েছে নবসাজে। হোটেলগুলোতে সবাইকে স্বাগত জানাতে তৈরি হয়েছে দৃষ্টিনন্দন ক্রিসমাস ট্রি। হোটেলগুলোতে খাবার-দাবার, আনন্দ আয়োজন আর ফ্যাশন শোর নানা আয়োজন করা হয়েছে বলে জানা যায়।

    শিশুদের হাতে উপহার তুলে দিতে হাজির হবেন সান্তাক্লজ। হোটেলগুলোর পাশাপাশি খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের পদচারণায় মুখর থাকবে বিভিন্ন গির্জাগুলো। বড়দিন উপলক্ষে সারাদিন ধরে গির্জাগুলোতে চলবে বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও প্রার্থনা।

    উল্লেখ্য, যে যিশুখ্রিস্টকে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীরা যিশুখ্রিস্ট হিসেবে মানে তিনি  ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের কাছে হজরত ইসা(আঃ) এবং  মাতা মেরি হিসেবে খ্রিস্টানরা যাকে জানেন তিনি হচ্ছেন হজরত মরিয়ম (আঃ) যিনি হজরত ইসা(আঃ) এর মাতা।