আজ ৮ম বাংলাদেশ গেমস শুরু : উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

    0
    506

    ঢাকা, ২০ এপ্রিল : আজ শনিবার বিকেলে উদ্বোধন হবে দেশের এ বড় আয়োজন। ১১ বছর ১ মাস পর আজ সন্ধ্যায় ২১ কোটি ৭৪ লাখ টাকার গেমসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইতিমধ্যেই বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামকে পুরোপুরি প্রস্তুত করা হয়েছে। এ লক্ষ্যে গত কয়েক দিন ধরেই বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে চলছে গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মহড়া। বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজনেরই চেষ্টা করছে। আজ শনিবার গেমস আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হতে যাচ্ছে।

    আজ ৮ম বাংলাদেশ গেমস শুরু : উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
    আজ ৮ম বাংলাদেশ গেমস শুরু : উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

    প্রধানমন্ত্রী স্টেডিয়ামে পা রাখবেন ছয়টা ৪০ মিনিটে। ছয়টা ৫০ মিনিটে মাঠের মধ্যবর্তী স্থানে মঞ্চে দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মার্চপাস্টের সালাম গ্রহণ করবেন। এরপর প্রধানমন্ত্রীর হাতে অষ্টম বাংলাদেশ গেমসের ফ্ল্যাগ, মাসকট তুলে দেয়া হবে। গেমসের মূল উদ্বোধনী ঘোষণা হবে সন্ধ্যা সাতটা ৩৫ মিনিটে। অলিম্পিক এসোসিয়েশনের সভাপতি সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল ইকবাল করিম ভূঁইয়া শুভেচ্ছা বক্তব্য দেয়ার পরই ডিজিটাল বোর্ডে স্বাক্ষরের মাধ্যমে অষ্টম বাংলাদেশ গেমসের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
    প্রধানমন্ত্রীর এ স্বাক্ষর বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে লেজার শোর মাধ্যমে ফুটে উঠবে। পরে মাঠে প্রবেশ করবে মাসকট তারুণ্য। আর মশাল জ্বালাবেন সাবেক তারকা হকি খেলোয়াড় জুম্মন লুসাই। ৮টা ০৭ মিনিটে শঙ্কর শাওজালের নেতৃত্বে হৃদয়ে খেলাধুলা ব্যানারে ৬০০ পারফরমার বিশেষ একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেবে। অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার আগে আতশবাজির পর্ব আর তার আগে থাকবে  থিম সংগীত। থিম সংগীত পরিবেশন করবেন সুবীর নন্দী, শাকিলা জাফর, কনা, পার্থ বড়ুয়া, ফাহমিদা নবী, বাপ্পা মজুমদার।
    উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মঞ্চায়ন করতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের মাঝখানে স্থাপন করা হয়েছে গোলাকার একটি বিশাল মঞ্চ। আর মঞ্চের চারদিকে বসানো হয়েছে সাতটি ডিজিটাল জায়ান্ট স্ক্রিন। নানা ধরনের বাতি তো থাকছেই। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে প্রায় চার ঘণ্টা ধরে। আগামীকাল বিকেল চারটা ৪৮ মিনিটে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হবে। ব্যান্ড ডিসপ্লে শুরু হবে পাঁচটা ৪০ মিনিটে; চলবে ৪০ মিনিট। এরপর মাগরিবের নামাজের জন্য বিরতি ১৫ মিনিট। গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের  আকর্ষণীয় ইভেন্টগুলো দেখা যাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্টেডিয়ামে পা রাখার পর। শেষ হবে রাত ৮টা ৩৩ মিনিটে আতশবাজির পর্ব দিয়ে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ আতশবাজির পর্ব  চলবে ১০ মিনিট।
    বরাবরের মতোই প্রথমে জাতীয় সংগীত, এথলেটদের মার্চপাস্ট, শপথ, বিশাল জাতীয় পতাকা প্রদর্শন, যৌথ বাদ্যযন্ত্র দলের লোগো ফুটিয়ে তোলা হবে। প্রধানমন্ত্রী স্টেডিয়ামে আসা পর্যন্ত মঞ্চের জায়ান্ট স্ক্রিনের মাধ্যমে প্রদর্শন করা হবে স্বাধীনতার পর থেকে দেশের খেলাধুলার বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তগুলো। ব্যাকগ্রাউন্ডে তখন বাংলাদেশের ক্রীড়ার ইতিহাস ও ঐতিহ্য তুলে ধরা হবে। ক্রীড়াবিদদের শপথ পড়াবেন দেশের দ্রুততম মানব-মানবী মোহন খান ও নাজমুন নাহার বিউটি।