আফগান বিশিষ্ট যোদ্ধা ইসমাইল খানকে বন্দি করেছে তালেবান

0
583
আফগান বিশিষ্ট যোদ্ধা ইসমাইল খানকে বন্দি করেছে তালেবান

আফগানিস্তানের তৃতীয় বৃহত্তম হেরাত নগরীর বেশির ভাগই দখল করে নেওয়ার পাশাপাশি আফগান বিশিষ্ট যোদ্ধা ইসমাইল খানকে বন্দি করেছে তালেবান। তালেবানের মুখপাত্র জাবিনুল্লাহ মুজাহিদ ইসমাইল খানকে বন্দি করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ইসমাইল খানের বয়স ৭০ এর কোঠায়। তিনি আফগানিস্তানের সবচেয়ে বিশিষ্ট একজন কমান্ডার। হেরাত নগরীতে নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন তিনি। খবর রয়টার্সের।

তালেবান যোদ্ধারা বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট ২০২১) হেরাতের অধিকাংশ এলাকা দখলে নেয়। আফগানিস্তানের গুরুত্বপূর্ণ এই প্রদেশ তালেবানের দখলে যাওয়া সরকারের জন্য বিরাট ধাক্কা হিসেবে মনে করা হচ্ছিল। এরপর শুক্রবার (১৩ আগস্ট ২০২১) তালেবান হেরাতের স্থানীয় প্রশাসনকে আত্মসমর্পণের আহ্বান জানায়। আত্মসমর্পণকারীদের তারা কোনো ক্ষতি করবে না বলে ঘোষণা দেয়। এরপর সেখানকার প্রশাসন- সেনা সদরদপ্তর, বিমানবন্দর এবং সরকারি স্থাপনাগুলোতে থেকে সেনা সরিয়ে নিতে রাজি হয়।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়, হেরাত আফগান সরকারের জন্য অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কারণ এখানকার যোদ্ধা ইসমাইল খান স্থানীয় যোদ্ধাদের একত্র করে তালেবানের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিলেন। কিন্তু শুক্রবার তিনি তালেবানের হাতে বন্দি হলেন।

খবরে আরও বলা হয়, তালেবানের সঙ্গে এক চুক্তি মোতাবেক- হেরাতের বর্তমান গভর্নর, কয়েকজন নিরাপত্তা কর্মকর্তাসহ ইসমাইল খানকে তালেবান যোদ্ধাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তবে চুক্তিতে কী ছিল সেটার বিস্তারিত জানা যায়নি।

এদিকে আরেকটি খবরে বলা হয়েছে, ইসমাইল খান তার যোদ্ধাদের নিয়ে তালেবানের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন। এরপর তালেবান তাকে গৃহবন্দি করে রেখেছে।