আলোচনায় বসতে চায় সরকার : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

    0
    657

    স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর বলেছেন, বিএনপি যদি আলোচনায় বসতে চায় তাহলে সরকার ও আওয়ামী লীগ বিষয়টি বিবেচনা করবে। তবে সে আলোচনা হতে হবে পূর্বশর্তহীন। গতকাল বুধবার সকালে চট্টগ্রামে কোস্টগার্ডের এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।
    স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি যদি শর্তহীন আলোচনায় বসতে চায় তাহলে আমরা সে আলোচনায় অংশ নেব। আমরা বহু আগে থেকেই আলোচনার কথা বলছি।’ বিএনপির উদ্দেশে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আপনাদের তরফ থেকে কিছু বলার থাকলে আসুন কথা বলি। কিন্তু কথা বলার ভাষা যদি বোমা ফেলার কার্যক্রমে নিহিত থাকে, সে কথা বলা ফলপ্রসূ হবে বলে আমরা মনে করি না।’
    স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, প্রতিবাদের ভাষা সহিংসতা হতে পারে না। আমরাও এ বক্তব্যের সঙ্গে একমত। বাঁশখালী, লোহাগাড়া ও সাতকানিয়ার ভাষা প্রতিবাদের ভাষা নয়। এসব দমনের জন্য আমরা পদক্ষেপ নিচ্ছি। সেখানে সহিংসতায় ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার।’
    এর আগে সকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নগরের পতেঙ্গা এলাকায় কোস্টগার্ডের নবনির্মিত কোস্টাল ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টারের (সিএমসিসি) উদ্বোধন করেন। এটি একটি নিয়ন্ত্রণকক্ষ। দুর্যোগ মোকাবিলা থেকে শুরু
    করে বঙ্গোপসাগরে দস্যুতা ও চোরাচালান দমনসহ বিভিন্ন কার্যক্রম এখান থেকে নিয়ন্ত্রণ ও তদারক করা যাবে।
    অনুষ্ঠানে মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনা বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন স্থানীয় সাংসদ এম এ লতিফ ও কোস্টগার্ডের মহাপরিচালক কাজী সরোয়ার হোসেন।
    অনুষ্ঠানে জানানো হয়, টেকনাফ থেকে খুলনা পর্যন্ত উপকূলীয় অঞ্চলে এ ধরনের ৩০টি নিয়ন্ত্রণকক্ষ স্থাপন করা হবে। যুক্তরাষ্ট্রের অর্থায়নে এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

    আলোচনায় বসতে চায় সরকার : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
    আলোচনায় বসতে চায় সরকার : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী