‘ইত্যাদি’ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানে টিকেট বাণিজ্যে কর্তৃপক্ষের অনুমতি নেই

0
445

আমার সিলেট রিপোর্ট: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ১৫ ডিসেম্বর শুক্রবারে বিকাল থেকে অনুষ্ঠিতব্য হানিফ সংকেত পরিচালিত বিটিভির জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান “ইত্যাদি”র টিকেট বিক্রি নিয়ে যে জল্পনা-কল্পনা ও অভিযোগ উঠেছে ইত্যাদি অনুষ্ঠান কর্তৃপক্ষের এ বিষয়ে টাকা পয়সা লেনদেনের কোনো অনুমতি নেই।

এ বিষয়ে ইত্যাদির নির্ভর সূত্রে জানা গেছে “এই অনুষ্ঠানে দর্শক হিসেবে উপস্থিত থাকার জন্য স্থানীয় প্রশাসন পাস কার্ড প্রদান করে থাকে। যেহেতু স্থানীয়দের কাউকে আমরা জানি না এজন্য বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনের উপরে দেওয়া হয়ে থাকে।”
এ ধরনের কোনো অভিযোগ থাকলে স্থানীয় প্রশাসনকে জানানো উচিত।

অভিযোগ উঠেছে সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা থেকে ১০০০ টাকায় টিকেট বিক্রি হচ্ছে! এই অভিযোগ এনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিষয়টি নিয়ে নানা কথা অনলাইনে ঘুরে বেড়াচ্ছে ।
ইত্যাদি অনুষ্ঠানের নামে পাস বিক্রি হওয়ার বিষয়ে কমলগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে সরকারি নাম্বারের হোয়াটসঅ্যাপে ফোন ও মেসেজের মাধ্যমে যোগাযোগ করেও কোন উত্তর পাওয়া যায়নি।

কমলগঞ্জের কুরমা চা বাগানে অনুষ্ঠিতব্য ইত্যাদির জনপ্রিয় টিভি প্রোগ্রামটি দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রায় ৩৫ বছর ধরে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। ঠিক তেমনি মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার কুরমা চা বাগানের একটি মুক্ত স্থানে এবার কিছু অংশ ধারন সম্পর্কিত শুটিং অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।
সকলের অবগতির জন্য জেনে রাখা উচিত, ইত্যাদি অনুষ্ঠান সরাসরি দেখা যায় না। একজন দর্শক শুধু মাত্র ধারন অনুষ্ঠান উপভোগ করতে পারে। অর্থাৎ শুধুমাত্র অনুষ্ঠানের শুটিং অনুষ্ঠানটি দেখা যায়।

কর্তৃপক্ষের তথ্যসুত্র থেকে জানা যায়,এই অনুষ্ঠানটি সকলের জন্য উন্মুক্ত। শুধুমাত্র গ্যালারিতে থাকা নির্দিষ্ট সংখ্যক চেয়ারে বসার জন্য আয়োজনকারী প্রতিষ্ঠান কর্তৃক প্রদত্ত পাশ প্রয়োজন হবে । কিন্তু এই পাশ নিতে কোন টাকার প্রয়োজন নেই। সম্পূর্ণ বিনামূল্যে সংশ্লিষ্টদের মাঝে বিতরণ করা হয়। গ্যালারির এরিয়ার বাইরে মাঠের যে কোন জায়গা থেকে এই অনুষ্ঠান উপভোগ করা যাবে।

অনলাইন সূত্রে আরও জানা যায়,ইত্যাদি অনুষ্ঠানে প্রবেশের জন্য পাশ/টিকিট নিয়ে কোন প্রকার আর্থিক লেনদেন না করার সতর্কতা রয়েছে।
প্রসঙ্গত,কমলগঞ্জ উপজেলার কুরমা চা বাগানের লেক পাড়ে উন্মুক্ত মাঠে শুক্রবার ১৫ ডিসেম্বর বিটিভির জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদি ধারণ করা হবে। শুক্রবার বিকাল সাড়ে চারটা থেকে আসার গ্রহণ এবং সন্ধ্যা ৬টা থেকে শুরু হবে ইত্যাদির অনুষ্ঠান ধারণ কাজ,যা চলবে রাত বারোটা পর্যন্ত। এজন্য ইত্যাদি কর্তৃপক্ষকে সহযোগিতা করছে ন্যাশনাল টি কোম্পানি লিমিটেড ও স্থানীয় প্রশাসন।

আগামী ২৯ ডিসেম্বর বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারিত হবে ইত্যাদির মৌলভীবাজার পর্ব। এবারের ইত্যাদি অনুষ্ঠান হচ্ছে মৌলভীবাজার নিয়ে। অনুষ্ঠানের এই পর্বে জেলার ইতিহাস, ঐতিহ্য তুলে ধরা হবে। দেখানো হবে সারাদেশে প্রশংসা কুঁড়ানো মৌলভীবাজার পৌরসভার পলিথিন হাটসহ চা বাগান, ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর ঐতিহ্য।

ইত্যাদি অনুষ্ঠানে পাস/টিকিট গ্রহনের শর্ত: অনুষ্ঠান চলাকালীন কিছু শর্ত মেনে চলতে হয়। আর এই শর্ত গুলো হলো:-

নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আসন গ্রহণ করতে হবে।
একটি আমন্ত্রণপত্র একজনের জন্য প্রযোজ্য।
১৪ বছরের কম বয়সী শিশুদের সঙ্গে আনা যাবে না।
কোন প্রকার হ্যান্ডব্যাগ এবং ক্যামেরা সঙ্গে আনা যাবে না।
ধারণ চলাকালীন সময়ে মোবাইল ফোনটি বন্ধ রাখতে হবে ইত্যাদি।