একজন সিনেটরের এ ধরনের বক্তব্য কি পরিমান ঘৃনা প্রকাশ করে ?

0
40
হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারী ইরানি প্রেসিডেন্ট

ম আহমেদ: একজন সিনেটরের এ ধরনের বক্তব্য কি পরিমান ঘৃনা প্রকাশ করে ?ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি , পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির আব্দুল্লা আল হিয়ানকে খোঁজে পাওয়া যাচ্ছিলনা এবং তাদের খোঁজে যখন বিভিন্ন দেশ সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে ছিল আর উদ্বিগ্ন ছিলেন বিশে^র বিভিন্ন নেতা, তখন যুক্তরাষ্ট্রের এক সিনেটর বলেছেন রাইসি মারা গেলে বিশ্ব নিরাপদ। মার্কিন এই সিনেটরের নাম রিক স্কট।

রিক স্কটের মন্তব্য থেকে তার ও যুক্তরাষ্ট্রের ঘৃনা প্রকাশ পেল, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এমন এক দেশ যারা নিজেদের স্বার্থ ছাড়া অন্য কিছু চিন্তা করে না। বর্তমানে বিশ^ কি আসলে নিরাপদ ? রাইসি ইরানের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পূর্বে ও কি বিশ^ নিরাপদ ছিল ? ১৯৯১ ইং সালে ইরাকের সাথে ঈঙ্গ ,মার্কিন যুদ্ধ , আফগানিস্তানের সাথে মার্কিনীদের যুদ্ধ , লিবীয়ার সাথে ফ্রান্স , মার্কিনীদের যুদ্ধ, উক্ত যুদ্ধ গুলোতে মার্কিনীরা যে পরিমান মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছিল বা তাদের গোয়েন্দা তথ্যে যে ভুল ছিল পরে তা প্রকাশ করেছে । কিন্তু তারা যে রাষ্ট্র গুলোর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেছে উক্ত রাষ্ট্রের যে পরিমান ক্ষতি হয়েছে তার দায় কি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নিয়েছে ? বর্তমানে ফিলিস্তিনের সঙ্গে ইসরাইল যে যুদ্ধ করছে তার পেছনে কাদের হাত। ইহুদীদেরকে ১৯৮৪৮ ফিলিস্তিনে কারা নিয়ে এসেছিল, উক্ত কাজটি করেছিল বৃট্রেন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হচ্ছে বিশে^র একটি মিথ্যাবাদী ও স্বার্থবাদী রাষ্ট্র। যে বা যারা, ব্যাক্তি/ রাষ্ট্র মার্কিন রাষ্ট্রের কথা মত কাজ করবে না তারাই বিশে^র জন্য ক্ষতিকর , মুলকথা ওরা বিশে^র জন্য ক্ষতিকর নয়, ওরা মার্কিনীদের খেলার পুতুল হতে ছায়নি, ওরা ছেয়েছে নিজের দেশকে মার্কিন প্রভাব থেকে মুক্ত রাখা , নিজের দেশকে স্বনির্ভর করার চেষ্টা করা। সর্বশেষ কথা হচ্ছে সা¤্রাজ্যবাদ, পুঁজিবাদ এর বিরুদ্ধে যে বা যারা কথা বলবে তারাই মার্কিন যুক্ত রাষ্ট্রের দুশমন।