এসেসিয়াসিওঁ দে ক্যাতলিক বাংলাদে রেসিদঁ অঁ ফ্রন্সের ১২ বছর পুর্তি উদযাপন

    0
    310

     

    এসেসিয়াসিওঁ দে ক্যাতলিক বাংলাদে রেসিদঁ অঁ ফ্রন্সের ১২ বছর পুর্তি উদযাপন
    এসেসিয়াসিওঁ দে ক্যাতলিক বাংলাদে রেসিদঁ অঁ ফ্রন্সের ১২ বছর পুর্তি উদযাপন

    আমারসিলেটটোয়েন্টিফোর.কম ০৫ সেপ্টেম্বর,ফ্রান্স প্রতিনিধি :  প্রেম ভ্রাতৃত্ব ও একতার বন্ধনে আবদ্ধ থেকে বাংলা সংস্কৃতী চর্চার মাধ্যমে বাঙালি সংস্কৃতিকে ফ্রান্সব্যাপী পরিচিত করার লক্ষ্যে এক যুগ ধরে কাজ করে যাচ্ছে এসেসিয়াসিওঁ দে ক্যাতলিক বাংলাদে রেসিদঁ অঁ ফ্রন্স।নতুন প্রজন্মের মধ্যে দেশ প্রেম ও ধর্মীয় সম্পৃতী বাড়ানোর লক্ষ্যে ধর্মীয় সকল অনুষ্টানাদি এবং বাংলাদেশী জাতীয় দিনগুলিতে সবাইকে একত্র করে পালন করে আসছে এ সংগঠনটি।বিগত দিনের মত ভবিষ্যতে ও অসহায় মানুষের পাশে দাড়িয়ে মানবতার কল্যানে কাজ করে যাবে উল্লেখ করে বক্তারা এসব কথা বলেন।
    গত রবিবার প্যারিসের ক্লিনকোর্টের সেন্ট হেলেন চার্চে এসেসিয়াসিওঁ দে ক্যাতলিক বাংলাদে রেসিদঁ অঁ ফ্রন্সের ১২ বছর পুর্তি উদযাপন উপলক্ষ্যে অনুষ্টিত হয় এক আলোচনা সভা ও মনোগ্ঘ সাংস্কৃতীক অনুষ্টান।সংগঠনের সভাপতি বিমল সেলেষ্টিন ক্রুজ এর সভাপতিত্বে সংগঠনের সাধারন সম্পাদক শংকর ডেভিড ক্রুজ এর উপস্হাপনায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি প্যারিসের বাংলাদেশী কমিউনিটি নেতা বিমল সেলেষ্টিন ক্রুজ,ফ্রান্সস্হ বাংলাদেশ দুতাবাসের প্রথম সেক্রেটারি ওয়ালিউর রহমান,ফাদার বার্নাট সরকার,ফাদার প্রেমো রোজারিও ,ফাদার স্টেনলি আদি গমেজ ,দীপক গমেজ,রবিন গমেজ,প্রদীপ গমেজ,এবং সহ সভাপতি ফ্রান্সিস গমেজ প্রমুখ।দিনটি উদযাপন উপলক্ষ্যে এসেসিয়াসিওঁ দে ক্যাতলিক বাংলাদে রেসিদঁ অঁ ফ্রন্সের উদ্যোগে দিনব্যাপি ব্যাপক কর্মসুচীর আয়োজন করা হয়।দিনের শুরুতে বেলুন উড়িয়ে ও কেক কেটে অনুষ্টানের উদ্ভোধন করেন সংগঠনের সভাপতি বিমল সেলেষ্টিন ক্রুজ ও প্রধান অতিথি ওয়ালিউর রহমান ,বিশেষ অতিথিবৃন্দ ,প্রাক্তন কর্মকর্তাবৃন্দ,কার্যকরী কমিটির সদস্যবৃন্দ;ও দর্শকবৃন্দ।

    অনুষ্টানের শুরুতে সংগঠনের বিভিন্ন উন্নয়নমুখি কার্যক্রম ও আগামীদিনের সম্ভাবনাময় পরিকল্পনা তুলে ধরেন সংগঠনের সভাপতি বিমল সেলেষ্টিন ক্রুজ।অনুষ্টানে উপস্তিত অতিথিবৃন্দ এসেসিয়াসিওঁ দে ক্যাতলিক বাংলাদে রেসিদঁ অঁ ফ্রন্সের কার্যক্রমে অত্যন্ত আনন্দ প্রকাশ করে আয়োজক ও উপস্হিত দর্শকদের শুভেচ্ছা জানান।অনুষ্টানের দ্বিতীয় পর্বে সোপান মনিকা গমেজ ও প্রদীপ পিউরি থিকেশন  এর সন্চালনায় অনুষ্টিত হয় সাংস্কৃতীক অনুষ্টান।আকর্ষনীয় লটারী,হাসতে নাকি নেই মানা,নৃত্য,গান সহ জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে সাজানো হয় সাংস্কৃতীক অনুষ্টান।প্যারিসের স্হানীয় জনপ্রিয় শিল্পী নিশীতা বড়ুয়ার মনমোগ্দকর গান উপস্হিত সবাইকে মোহিত করে।দিনব্যাপী বিভিন্ন ধরনের মুখরোচক খাবার পরিবেশন ও সংগঠনের সাবেক নেতৃবৃন্দের গান,কৌতুক, অনুষ্টানের শুভাবর্ধনে সহায়তা করে।তাছাড়া অনুষ্টানস্হল থেকে বাংলাদেশের একটি অসুস্হ অসহায় শিশুর জন্য অর্থ সংগ্রহ করা হয় এবং এক যুগ পুর্তি উপলক্ষ্যে সংঠনের পক্ষ্য থেকে একটি স্মরনীকা প্রকাশ করা হয়।