ওয়ানডে সিরিজের ২য় ম্যাচে খেলতে নামছে ইন্ডিয়া ও শ্রীলংকা

    0
    211

    আমারসিলেট24ডটকম,নভেম্বরঃ আগামীকাল রোজ বৃহস্পতিবার শ্রীলংকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের ২য় ম্যাচে খেলতে নামছে ইন্ডিয়ান টিম। দাপটের সাথে শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডে জিতে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে স্বাগতিক ভারত। তাই সিরিজে এগিয়ে থেকে বৃহস্পতিবার লংকানদের বিপক্ষে ২য় ম্যাচে খেলতে নামছে টিম ইন্ডিয়া। ১ম ম্যাচের মত ২য় ম্যাচও জিতে সিরিজে ডাবল লিড নিতে চায় ওয়ানডের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ভারত। আর শ্রীলংকার লক্ষ্য সিরিজে সমতা ফেরানো। আহমেদাবাদে বাংলাদেশ সময় বেলা ২টায় শুরু হবে খেলাটি।
    সূচীতে হঠাৎ যোগ হওয়া ওয়ানডে সিরিজ খেলতে পুরোপুরি প্রস্তুত নয় তার দল, ভারতের মাটিতে পা রেখে এমনটাই জানিয়েছিলেন শ্রীলংকার অধিনায়ক এঞ্জেলো ম্যাথুজ। কটকে ১ম ম্যাচের চিত্রের সাথে ম্যাথুজের এমন কথার মিল পুরোপুরিভাবে মিলেও গেছে। ব্যাট-বল-ফিল্ডিং ৩ বিভাগের কোনটিতেই পাস মার্ক পাওয়ার যোগ্যতা ছিল না সফরকারীদের।
    প্রথমে শ্রীলংকার বোলার ও ফিল্ডারদের ব্যর্থতার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ভারতকে বড় সংগ্রহের পথ তৈরি করে দেন স্বাগতিক ২ ওপেনার আজিঙ্কা রাহানে ও শিখর ধাওয়ান। এই জুটি শেষ পর্যন্ত দলকে উপহার দেন ২৩১ রান। দু’জনই স্পর্শ করেছেন ৩ অঙ্কের কোটা। রাহানে ১১১ ও ধাওয়ান করেন ১১৩ রান। ৩৭ দশমিক ৫ বলের মধ্যে এই দুই ওপেনারের বিদায়ের পরও পরবর্তী ব্যাটসম্যানদের ছোট ছোট ইনিংসের সহায়তায় ভারতের ইনিংস গিয়ে পৌঁছায় ৩৬৩ রানে। এ জন্য স্বাগতিকদের খরচ করতে হয় ৫ উইকেট। এ ম্যাচে ৩ উইকেট নিয়ে শ্রীলংকার সফল বোলার হন স্পিনার সুরজ রনদিব। এজন্য ৭৮ রান দিতে হয়ে রনদিবকে। আর ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মারমুখী ব্যাটিংয়ের জন্য শ্রীলংকার কোন স্বীকৃত বোলারের ইকোনমি রেট সোয়া ছয়ের নিচে নামতেই পারেননি। বোলারদের সাথে ফিল্ডাররাও ছিলেন ব্যর্থতার কাতারে। উইকেটরক্ষক কুমার সাঙ্গাকারা ফেলেছেন ৩টি গুরুত্বপূর্ণ ক্যাচ। এরমধ্যে ছিল রাহানে ও ধাওয়ানের ক্যাচও। আর তাতেই যা ক্ষতি হবার হয়ে গেছে শ্রীলংকার।
    বোলার-ফিল্ডারদের ব্যর্থতাকে অনুসরন করে শ্রীলংকার ব্যাটসম্যানরাও। ব্যর্থতার মাত্রাটা এত বেশি ছিল যে, ভারতীয় দুই ওপেনারের ২৩১ রানের জুটিও অতিক্রম করতে পারেনি শ্রীলংকা। সফরকারীরা অলআউট হয়েছে ১৯৪ রানে। ফলে ১৬৯ রানে ম্যাচ জিতে ভারত। দীর্ঘ নয় মাস পর ওয়ানডে দলে ফিরে এ ম্যাচে ৪ উইকেট শিকার করেছেন পেসার ইশান্ত শর্মা।
    ১ম ম্যাচে দলের এসব ব্যর্থতা ভুলে গিয়ে নতুনভাবে শুরু করতে চান শ্রীলংকার অধিনায়ক ম্যাথুজ। ২য় ম্যাচে ভালো খেলে সিরিজে সমতা আনাই প্রধান লক্ষ্য বলে জানালেন তিনি, ১ম ম্যাচে ভালো খেলতে পারিনি আমরা। আশা করছি ২য় ম্যাচে ভালো খেলবে দল। এ ম্যাচে জিততেই হবে, নয়ত অনেক বেশি চাপে পড়ে যাবো আমরা। তাই এ ম্যাচ জিতে সিরিজে সমতা আনার লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবো আমরা।
    ম্যাথুজের মত জিততে চাইছেন ভারতের দলপতি বিরাট কোহলিও। আর তা করতে পারলে সিরিজে ডাবল লিড নেয়া সম্ভব হবে বলে জানান কোহলি, ১ম ম্যাচে দারুণ খেলেছে ছেলেরা। এটি অব্যাহত রাখতে হবে। আহমেদাবাদেও জয়ের স্বাদ পেতে চাই আমরা। তা করতে পারলে সিরিজে অনেক দূর এগিয়ে যাবো আমরা। ডাবল লিড নিতে পারলে, প্রতিপক্ষের উপর বড়সড় চাপ সৃষ্টি করা যাবে। ১ম ওয়ানডেতে বল করার সময় ডান পায়ে ব্যথা পান ভারতের পেসার বরুন এরন। তাই স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েছেন তিনি। ফলে অ্যারনের জায়গায় পরবর্তী ২ ওয়ানডের জন্য দলে ডাকা হয়েছে অলরাউন্ডার স্টুয়ার্ট বিনিকে। দলে সুযোগ পেলেও, ২য় ওয়ানডের একাদশে বিনিকে নেয়া হবে কিনা তা নিশ্চিত করেনি ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট।

    ভারত টিমঃবিরাট কোহলি (অধিনায়ক), স্টুয়ার্ট বিনি, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, শিখর ধাওয়ান, রবীন্দ্র জাদেজা, ধাওয়াল কুলকার্নি, অমিত মিশ্র, অক্ষর প্যাটেল, আজিঙ্কা রাহানে, সুরেশ রায়না, আম্বাতি রাইদু, ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটরক্ষক), ইশান্ত শর্মা, মুরালি বিজয় ও উমেশ যাদব।

    শ্রীলংকা টিমঃএঞ্জেলো ম্যাথুজ (অধিনায়ক), চাতুরঙ্গা ডি সিলভা, নিরোশান ডিকবেলা, তিলকরত্মে দিলশান, লাহিরু গামেগা, মাহেলা জয়াবর্ধনে, সুরজ রনদিব, নুয়ান কুলাসেকেরা, কুশল পেরেরা, থিসারা পেরেরা, ধাম্মিকা প্রসাদ, সেকুজ্জি প্রসন্ন, আশান প্রিয়াঞ্জন, কুমার সাঙ্গাকারা (উইকেটরক্ষক) ও উপুল থারাঙ্গা।