কমলগঞ্জে এলাকাবাসীর সচেতনতায় রক্ষা পেলো খেলার মাঠ

0
1114
কমলগঞ্জে এলাকাবাসীর সচেতনতায় রক্ষা পেলো খেলার মাঠ
কমলগঞ্জে এলাকাবাসীর সচেতনতায় রক্ষা পেলো খেলার মাঠ

আদমপুর এম,এ,ওহাব উচ্চবিদ্যালয় মাঠের একাংশ থেকে নেওয়াঃ ছবি প্রতিবেদক

শাব্বির এলাহী,কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে স্থানীয় এলাকাবাসীর চেষ্টায় ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে আদমপুর এম,এ,ওহাব উচ্চবিদ্যালয় মাঠ। জেলা উপজেলা এমনকি দেশ বিদেশের তারকা খেলোয়াড়দের অংশগ্রহণে আদমপুর ইউনিয়নের এ মাঠে প্রায়ই গোল্ডকাপসহ বিভিন্ন ধরণের টুর্ণামেন্ট অনুষ্টিত হয়। মাঠের পাশে একটি পুরাতন ব্রীজ ভেঙে এলজিইডির তত্ত্বাবধানে নতুন ব্রীজ নির্মাণ হচ্ছে। পুরাতন ব্রীজ ভেঙে বিকল্প রাস্তা তৈরীর জন্য সম্প্রতি নিকটবর্র্তী খেলার মাঠে এস্কেভেটার দিয়ে মাটি নিচ্ছেন ঠিকাদারের লোকজন। ফলে মাঠের এক অংশে প্রায় ১৩/১৪ ফুট গভীর গর্ত সৃষ্ঠি হয়।

গত শুক্রবার (৬ মে) রাতে স্থানীয় ইউপি সদস্য বশির বক্স মাটি নেওয়া দেখতে পেযে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিষয়টি জানান। এলাকার একমাত্র খেলার মাঠটি এভাবে ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে দেখে এলাকার ক্রীড়াপ্রেমী ও সচেতন মানুষের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্ঠি হয়। রাতেই মানুষজন ঘটনার প্রতিবাদে মাঠে এসে জড়ো হন। কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাৎক্ষণিকভাবে মাটি নেওয়ার কাজ বন্ধ করার ব্যবস্থা করেন। পরদিন শনিবার (৫জুন) দুপুরে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের প্রতিনিধি ঘটনাস্থলে এসে মাঠ খুঁড়ে মাটি নেওয়ার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে দ্রুত গর্ত ভরাট করে দেওয়ার অংগীকার করেন।

এ সময় কমলগঞ্জ প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি শাব্বির এলাহী, ইউপি সদস্য বশির বক্স, আদমপুর এম,এ,ওহাব উচ্চবিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য হাজী আবু তৈয়ব কালাম, প্রধান শিক্ষক পদ্মমোহন সিংহ, বিশিষ্ট ক্রীড়ানূরাগী ও সমাজসেবক মইনুল ইসলাম, মতিউর রহমান,সেলিম মিয়া প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। ঠিকাদারের প্রতিনিধি স্বপন দেব রায় ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমার অনুপস্থিতিতে ভূলক্রমে খেলার মাঠ খুঁড়ে মাটি নিয়েছে শ্রমিকরা। আমি নিজ দায়িত্বে গর্ত ভরাট করে মাঠ রক্ষার ব্যবস্থা করছি। কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশেকুল হক এ প্রতিনিধিকে জানান, খবর পেয়ে সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে তাৎক্ষণিকভাবে মাঠ খুঁড়ে মাটি নেওয়া বন্ধ করার নির্দেশনা দিযেছি।