কমলগঞ্জে সুন্নি মাহফিলের আলেমদের গাড়ীতে হামলাঃআহত-৬

    1
    250

    আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২১ফেব্রুয়ারী,শাব্বির এলাহীঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ৫ নং কমলগঞ্জ ইউনিয়নের নারায়নপুরে একটি ধর্মীয় মাহফিলে যাওয়ার পথে চালক সহ ৬ জন আলেমকে আহত ও তাদের বহনকারী গাড়ীতে আক্রমন করেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার রাত ১০ টার দিকে নারায়নপুর ও রামপুরের মধ্যবর্তী স্থানে ১০/১২ জনের একটি দুবৃত্ত দল আগ্নেয়াস্ত্র সহ দেশীয় অস্ত্র সহকারে তাদের গাড়ীর উপর ঝাঁপিয়ে পরে। গ্রামের রাস্তায় আলেমদের বহনকারী গাড়ীটি সিগনাল দিয়ে আটকিয়ে এলোপাতাড়ি লোহার রড দিয়ে গাড়ী ভাংচুর করে আলেমদের নামিয়ে মারপিট করে আহত করে।

    জানা যায়, গাড়ী ভাংচুর করার সময়ে দুর্বৃত্তরা আল্লামা সিরাজ নগরীকে উল্লেখ করে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং সিরাজনগরীর ছেলে মুফতি শেখ শিব্বির আহমদের নাম ধরে তাকে খুঁজতে থাকে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন  এডভোকেট মাওলানা ইসলাম উদ্দিন দুলাল, অধ্যক্ষ নুরুল ইসলাম খান, মাওলানা রফিকুল ইসলাম, কবির উদ্দিন ও চালক সহ ৬জন। খবর পেয়ে কমলগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহিদুল হকের নের্তৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পরে পুলিশের সহযোগিতায় আহতদের কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করা হয়। আহত আলেমদের বাড়ি বি-বাড়িয়া জেলায়। তারা সবাই বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট ও ইসলামী ছাত্র সেনার নেতৃবৃন্দ।

    উল্লেখ্য, শুক্রবার রাতে কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের নারায়নপুরে বাৎসরিক সুন্নি মাহফিল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। একই মাহফিলে সিরাজনগরীর ছেলে মুফতি শেখ শিব্বির আহমদেরও দাওয়াত ছিল। এ ব্যাপারে মুফতি শেখ শিব্বির আহমদ সাংবাদিকদের জানান, আমিও ওই মাহফিলে যাওয়ার পথে ছিলাম। দুর্বৃত্ত একজন শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে (০১৮৬৮২৭৭৮১২) নম্বার থেকে ফোন করে আমাকে হুমকি প্রদান করেছে আমি যেন মাহফিলে না যাই। তিনি বলেন আমাকে হুমকি দাতা বলেন- “এটা কালিপুর না এটা নারায়নপুর আমরা ফুলতলির আশেক, এখানে আসলে ভাল হবেনা”। তিনি (মুফতি শেখ শিব্বির) আরও জানান ফোনটি রেকর্ড করা হয়েছে এবং কমলগঞ্জ থানাকে শুক্রবার রাতেই বিষয়টি জানিয়েছি।

    এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কমলগঞ্জ থানার ওসি মো. এনামুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি। তবে পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।আপডেট