কমলগঞ্জ শ্রমিকদের দু’ই দিনের কর্মবিরতি প্রত্যাহার

    0
    234

    কমলগঞ্জ প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ন্যাশনাল টি কোম্পানী (এনটিসি) এর মালিকানাধীন মদনমোহনপুর চা বাগানে গত সোমবার ও মঙ্গলবার টানা দুই দিন কর্ম বিরতির পর সমঝোতা বৈঠকের সিদ্ধান্তে অভিযুক্ত চা বাগান কর্মচারীকে প্রত্যাহারের পর মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর থেকে মদনমোহনপুর চা বাগানের আন্দোলনরত চা শ্রমিকরা কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

    চার দফা দাবিতে উপজেলার মাধবপুর মদনমোহনপুর চা বাগানের ৩০০ চা শ্রমিক সোমবার সকল ৯টা থেকে কর্মবিরতি শুরু করেছিল। মদনমোহনপুর চা বাগান প ায়েত সভাপতি উমা শঙ্কর কৈরী জানান, চা বাগানের গাড়ি চালক, সর্দার, দৈনিক মজুরি ভিত্তিক শ্রমিক ও মিস্ত্রিদের পদোন্নতি প্রদান করা, বাগানের অস্থায়ী শ্রমিকদের মধ্য থেকে ১০ জন শ্রমিককে স্থায়ীকরা, সম্প্রতি সময়ে চা শ্রমিক প্রদীপ তাহার ও জয়দীপ তাহারকে অযৌক্তিকভাবে দেয়া অভিযোগপত্র প্রত্যাহার ও এ চা বাগানের প্লান্টেশন এলাকা থেকে চা পাতা উত্তোলন করে পার্শ্ববর্তী মাধবপুর চা বাগানে নিয়ে যাওয়ার প্রতিবাদে সোমবার সকাল ৯টা থেকে মদনমোহনপুর চা বাগানের শ্রমিকরা কর্মবিরতি পালন করছিল।

    মঙ্গলবার সকাল থেকে দ্বিতীয় দিনের কর্মবিরতি চলাকালে উত্তেজিত চা শ্রমিকরা চা বাগান ব্যবস্থাপক মো. জাহাঙ্গীর আলমসহ আরও একজন সহকারি ব্যবস্থাপককে অফিসে কয়েক ঘন্টা আটকিয়ে রেখেছিল।

    মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় শ্রীমঙ্গলস্থ শ্রম অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নাহিদ ইসলাম এবং মদনমোহনপুর চা বাগান প ায়েত সভাপতি উমা শঙ্কর গোয়ালা, চা বাগান ব্যবস্থাপক মো. জাহাঙ্গীর আলম, চা শ্রমিক ইউনিয়নের মনু-ধলাই ভ্যালির সাধারণ সম্পাদক নির্মল দাশ পাইনকা, একই ভ্যালির চা বাগান কর্মচারী পরিষদের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমসহ চা শ্রমিক নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত চলা সমঝোতা বৈঠকের পর চা বাগান কর্তৃপক্ষ চা বাগানের অভিযুক্ত কর্মচারী জয় প্রকাশ কৈরীকে তাৎক্ষনিক প্রত্যাহার করে নিলে আন্দোলনরত চা শ্রমিকরা কর্ম বিরতি প্রত্যাহার করে বুধবার সকার থেকে কাজে যোগদানের সিদ্ধান্ত নেন।

    মদনমোহনপুর চা বাগান ব্যবস্থাপক মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, কর্মবিরতির ও সমঝোতা বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অভিযুক্ত কর্মচারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করলে চা শ্রমিকরা কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে নিয়েছে।