কিছু ব্যক্তি নারীকে পুনরায় ঘরের মধ্যে আবদ্ধ রাখার দাবি তুলেছে : মেনন

    0
    416
    কিছু ব্যক্তি নারীকে পুনরায় ঘরের মধ্যে আবদ্ধ রাখার দাবি তুলেছে  : মেনন
    কিছু ব্যক্তি নারীকে পুনরায় ঘরের মধ্যে আবদ্ধ রাখার দাবি তুলেছে : মেনন

    ঢাকা, ২৬ এপ্রিল : নারী অধিকার মানবাধিকার। এই অধিকারের বিরুদ্ধে আলেম নামধারী কিছু ব্যক্তি নারীকে পুনরায় ঘরের মধ্যে আবদ্ধ করার দাবি তুলছে। নারীর বিরুদ্ধে এই আক্রমণ চালানো হচ্ছে ধর্মের নামে, ইসলামের নামে। অথচ ইসলাম নারীকে সর্বোচ্চ সম্মান দিয়েছে, সমান অধিকার দিয়েছে। ইসলামের নামে যারা একথা বলে তারা হচ্ছে সেই শক্তি, যারা একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় এদেশের মা-বোনদের পাকিস্তানী সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দিয়েছিল। যখন যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরু হয়েছে তখনই এই ব্যক্তিরা ধর্মের জিগির তুলেছে। ধর্মকে মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার বিপরীতে দাঁড় করিয়েছে আজ বিকেলে পল্টনে এক নারী কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জননেতা রাশেদ খান মেনন এমপি একথা বলে।
    বেলা ৪ টায় রমনা, শাহবাগ, মতিঝিল, শাহজাহানপুর, পল্টনসহ বিভিন্ন অঞ্চলের নারী নেত্রীদের কর্মী সমাবেশে কামাল চৌধুরী সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগের মহানগর নেতা ইসমত জামিল আকন্দ লাবলু, মতিঝিল থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলাম আশ্রাফ তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপু, নারী নেত্রীদের মধ্যে থানা মহিলা আওয়ামীলীগের মহিলা সম্পাদিক তাহমিনা আল্পনা, মহানগর মহিলা লীগের সহ সভাপতি ফারজানা ডলি, সাংগঠনিক সম্পাদক শিরিন নঈম পুনম, নারী নেত্রী মমতাজ পারভীন শিমু, মিনু চৌধুরী, জহুরা বেগম, রাখি আক্তার, মিনু রহমান, নাছিমা বেগম, কামরূন নাহার, শেফাতি প্রমুখ।
    কর্মী সমাবেশে রাশেদ খান মেনন এমপি বলেন বাংলাদেশে নারী উন্নতি বিশ্বে প্রসংশিত। শিক্ষা ক্ষেত্রে ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েরা এগিয়ে চলছে। দেশের সবচেয়ে বেশি বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনকারি পোশাক শিল্প তথা গার্মেন্টেসের ৮৫ শতাংশ শ্রমিক হল নারী। এই নারীদের চলাফেরা নিয়ন্ত্রণ করা হলে, তাদের উপর বিধি নিষেধ আরোপ করা হলে তারাই কেবল ক্ষতিগ্রস্থ হবেনা, দেশের অর্থনীতিও চরম বিপাকে পড়বে। এধরণের অগণতান্ত্রিক মধ্যযুগীয় দাবির বিরুদ্ধে আজ ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়াতে হবে।