কিবরিয়া হত্যাঃ১১জনের বিরুদ্ধে পরোয়ানাঃসংঘর্ষের খবর

    0
    224

    আমারসিলেট24ডটকম,২১ডিসেম্বর,তফিদুর রহমান তালুকদার তৌফিকঃ আজ রোববার সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়া হত্যা মামলার সম্পূরক চার্জশীট দাখিলের পর ১১ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে হবিগঞ্জের জুডিশিয়াল আদালত। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির এএসপি মেহেরুন্নেছা পারুল আজ রোববার সকালে নতুনভাবে সম্পূরক চার্জশীট দাখিল করেন। নতুন এ চার্জশীটে আরও ১১ জন আসামিকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

    এ মামলার আসামীরা হলেন, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, হবিগঞ্জ পৌর মেয়র জি কে গউছ, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা হারিছ চৌধুরী, মুফতি আব্দুল হাই, মুফতি তাজ উদ্দিন, মুফতি সফিকুর রহমান, মোহাম্মদ আলী, বদরুল, মহিবুর রহমান, কাজল আহমেদ ও হাফেজ ইয়াহিয়া।
    গত ৩ ডিসেম্বর হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রোকেয়া আক্তার সম্পূরক চার্জশীটের ত্রুটি সংশোধন করে নতুন সম্পূরক চার্জশীট প্রদানের জন্য তদন্তকারী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

    গত ১৩ নভেম্বর বিকেলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির এএসপি মেহেরুন্নেছা পারুল হবিগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রোকেয়া আক্তারের আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। একই সাথে আগের চার্জশীটভুক্ত আসামী ইউসুফ বিন শরীফ, আবু বক্কর আব্দুল করিম ও মরহুম আহছান উল্লাহকে চার্জশীট থেকে অব্যাহতি প্রদানের আবেদন করা হয়।

     উল্লেখ্য,আদেশ শেষে বিএনপির সমর্থকরা আদেশ প্রত্যাখান করে মিছিল করে এবং এ সময় আওয়ামীলীগ সমর্থকরা আদেশের পক্ষে মিছিল করে  এক পর্যায়ে দুটি মিছিল মুখোমুখি  হলে  ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। এসময় পুলিশ লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল সহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

    অপরদিকে সাবেক স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী লুৎফুরজ্জামান বাবরের জামিন আবেদন করা হলে বিচারক জামিন না মঞ্জুর করে মামলার পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করেন ৮ জানুয়ারী-২০১৫।

    মামলার আসামী পক্ষের আইনজীবি এডভোকেট সালেহ আহমেদ জানান, আমরা মনে করি যারা প্রকৃত আসামী তাদের অভিযোগ পত্রে আনা হয়নি। শুধুমাত্র রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে তাদের আসামী করা হয়েছে।

    তিনি  আরও জানান, আদালত ৩৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশীট গ্রহন করে নতুন অন্তর্ভূক্তি ১১ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা এবং ৮ জন জামিনে আছে এবং ১৬ জন বিভিন্ন মামলায় কারাগারে আটক আছে।

    মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবি এডভোকেট আলমগীর ভূইয়া বাবুল জানান, বিজ্ঞ আদালত কিবরিয়া হত্যা মামলার সম্পূরক চার্জশীটের উপর শুনানী শেষে আদালত গ্রহন করে পলাতক আসামীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেছেন।

    মামলার বাদী এডভোকেট আব্দুল মজিদ খান এমপি জানান, আমি বাদী হিসেবে চার্জশীটের উপর সন্তোষ প্রকাশ করেছি। গতকাল থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিবরিয়া হত্যা বিচার কার্য শুরু হয়েছে। আমরা আশা করি এ সরকারের আমলেই এ হত্যাকান্ডের বিচার করা  সম্ভব হবে।