কুষ্টিয়ায় লালন উৎসব শুরু

    0
    444

    মানুষের পরিচয় জাত-পাতে নয়, মানুষকে ভালোবাসলেই পরমাত্মা তথা সৃষ্টিকর্তার নৈকট্য লাভ সম্ভব- লালনের এমন দর্শন তত্ত্ব নিয়ে কুষ্টিয়ার ছেঁউড়িয়ায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শুরু হয়েছে পাঁচদিনের লালন স্মরণ উৎসব। এ উৎসব উপলক্ষে বাউল সম্রাট ফকির লালন শাহের আখড়াবাড়ি আঙিনাতে সব প্রস্তুতি শেষ করেছে লালন একাডেমি।

    ইতোমধ্যে দেশ-বিদেশের বাউল, সাধু-গুরু ও ভক্ত অনুসারীরা এসে জমায়েত হয়েছেন লালনের আখড়াবাড়িতে। উৎসব ঘিরে লালন ভক্তদের মাঝে একদিকে যেমন সৃষ্টি হয়েছে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার। চলছে বাদ্যযন্ত্রের তালে তালে সাধুদের কণ্ঠে লালনের বাণী। ফকির লালন শাহ তার জীবদ্দশায় ফাগুন তথা দোল পূর্ণিমার রাতে ভক্ত-অনুসারীদের নিয়ে আখড়াবাড়িতে গান-বাজনা আর সাধন-ভোজনে মেতে উঠতেন। তার মৃত্যুর পরও এ ধারা অব্যাহত রয়েছে।

    দোল পূর্ণিমা তিথিতে লালন উৎসবে বাউল ভক্ত সাধু-গুরুরা আখড়াবাড়িতে চলে আসেন কয়েকদিন আগ থেকেই। এবারও এর ব্যতিক্রম হয়নি বিধায় একাডেমি চত্বরে আসন পেতে বসেছেন তারা।

    লালন একাডেমি সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় পাঁচ দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠান শুরু হবে। এদিন শুধু থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয়  দিবসের কারণে আজ কোনো আলোচনা অনুষ্ঠান রাখা হয়নি।

    উদ্বোধনী ও আলোচনা অনুষ্ঠান হবে ২৭ মার্চ। কুষ্টিয়া-৪ আসনের এমপি সুলতানা তরুণ প্রধান অতিথি থেকে পাঁচ দিনব্যাপী এ স্মরণ উৎসবের উদ্বোধন করবেন। লালন একাডেমির সভাপতি কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক সৈয়দ বেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন পুলিশ সুপার মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ, কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের প্রশাসক জাহিদ হোসেন জাফর, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. ইফতেখার মাহমুদ ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-রেজিষ্টার শামসুর রহমান বাবু।