কোম্পানীগঞ্জ-ভোলাগঞ্জ সড়ক সংস্কারের দাবীতে আলটিমেটাম

    0
    397

    আমারসিলেট24ডটকম,০৫জানুয়ারী,আবুল হোসেনসিলেট-কোম্পানীগঞ্জ-ভোলাগঞ্জ সড়ক সংস্কারে আলটিমেটাম দিয়ে দুই মাস ব্যাপি কর্মসুচী ঘোষনা কারেছেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার নারী জনপ্রতিনিধিরা। সোমবার (৫জানুয়ারী) বেলা সাড়ে ১২ টায় সিলেট নগরীর একটি অভিজাত রেষ্টুরেন্টে সাংবাদিকদের সাথে প্রেসব্রিফিংকালে নারী জনপ্রতিনিধিদের পক্ষে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন জাহান ফাতেমা এ কর্মসূচী ঘোষনা করেন।

    এসময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন জাহান ফাতেমা সিলেট ভোলাগঞ্জ সড়ককে ‘নরকওয়ে’ রাস্তা অভিহিত করে সাংবাদিকদের জানান, ওয়ান ইলেভেন পরবর্তী সংসদীয় আসন পূর্নবিন্যাসের নামে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলাকে সিলেট-১ আসন থেকে পৃথক করা হয়।

    এর পর থেকে এ অঞ্চলের মানুষ কার্যত অভিভাবহীন হয়ে পড়েছেন। এ উপজেলার মাটি ও মানুষের উন্নয়নের রূপকার সাবেক পররাষ্টমন্ত্রী ও মরহুম স্পীকার আলহাজ্ব হুমায়ুন রশীদ চৌধুরী উপজেলাবাসীকে উন্নয়নের যে আলোকবর্তীকা ও জঙ্গলে মঙ্গল প্রদীপ জ্বালিয়ে সমৃদ্ধির যে স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন সে স্বপ্ন আজ অপমুত্যু ঘটে চলেছে। অপারগতা আর অঙ্গীকারহীনতায় পাপের ফাঁদে পড়েছে বর্তমান নেতৃত্ব। ফলশ্রূতিতে এ অঞ্চলের যাপিত জীবনে নেমে আসা এ নরক যন্ত্রনা থেকে উত্তরনের কোন পথ খুজে পাচ্ছেন না উপজেলার মানুষ।

    যোগাযোগ ব্যবস্থার এ চরম বন্ধাত্মের কবলে উত্তর সিলেটের প্রতিটি মানুষ যে সময় প্রতিনিয়ত ত্রাহি ত্রাহি জপছে, ঠিক সে সময়ে তাদের এ করুন অবস্থায় রসিকতায় নেমেছে মুখচেনা কিছু দালাল ও ফড়িয়া চক্র। সড়কের বেহাল দশাকে পুঁজি করে স্থানে স্থানে মাথাছাড়া দিয়ে উঠেছে একটি তোলাবাজ চক্র। সড়কটি হয়ে পড়েছে স্থানীয় তস্কর ও ডাকাতদের একাদশে বৃহস্পতি। সন্ধ্যে হলেই রামÍায় আটকে পড়া যানবাহনে হামলা ও যানবাহন আটকিয়ে সর্বস্ব লুটে নিচ্ছে ডাকাত ও পথদস্যুরা।

    তাদের হামলায় প্রতিনিয়ত আহত হচ্ছে অসংখ্য বনিআদম । সড়কটির রূদ্ধশ্বাস ভ্রমন যাতাকলে পড়ে কত গর্ভবর্তী যে অকাল গর্ভপাতের শিকার হয়েছেন তার কোন ইয়ত্তা নেই। গুরুত্বর আহত হয়ে কত মানুষ যে অকালে যমের বাড়ী চলে গেছেন, তারও কোন হিসেব নেই।

    নাসরিন বলেন, সড়ক হবে শান্তির যাত্রাপথ, সিলেট ভোলাগঞ্জ সড়কের নারকীয় ঝাকুনীতে মানুষের মৃত্যু কিংবা জীবন হুমকির মূখে পড়–ক এটা কখনো কাম্য নয়। তিনি বলেন, ২০১৪সালের মে মাসে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আকস্মিক সিলেট-ভোলাগঞ্জ সড়ক পরিদর্শন করে সড়কটির মুমুর্ষু অবস্থা দেখে এটাকে ‘ক্যান্সার আক্রান্ত সড়ক বলে অবিহিত করেছিলেন। এসময় তিনি গত বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে ৬শ’ কোটি টাকা ব্যয়ে সড়কটিকে দূরারোগ্য ব্যাধি থেকে বাঁচানোর প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন।

    মন্ত্রীর এ আশ্বাসে এলাকার মানুষজন আশান্বিত হলেও বাস্তবতা বড়ই কঠিন! মন্ত্রীর আশ্বাসের বাণী আজো তাদের হৃদয়ে প্রতিধ্বনিত হলেও স্বপ্নভঙ্গের যাতনায় তাদের অন্তর দ্বগ্ধ ও হতাশার অতল গহ্বরে নিমজ্জিত। উপজেলাবাসীর অন্তরের এ হাহাকার মন্ত্রীর অন্তর স্পর্শ করছে কিনা তা উপজেলাবাসী জানেন না, তবে বিরামহীন এ যাতনার মধ্যেও তারা অভিশাপ না দিয়ে তার মঙ্গলই কামনা করছেন।

    সিলেটের কোম্পানীগঞ্জসহ উত্তরাঞ্চলের মানুষের পিঠ এখন দেয়ালে ঠেকে গেছে একথা উল্লেখ করে নাসরিন জাহান বলেন, স্বপ্নের সকল দরজা ক্রমশঃ বন্ধ হয়ে গেলেও উপজেলাবাসী তাদের শেষ ভরসাস্থল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সিলেটের কোটি মানুষের প্রাণের স্পন্দন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছেন । প্রেস ব্রিফিংকালে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন জাহান ফাতেমা এব্যাপারে সর্বস্তরের মিডিয়া কর্মী ও সাংবাদিকসহ সকল মহলের সহযোগিতা কামনা করেন।

    বক্তব্য শেষে ভাইস চেয়ারম্যন নাসরিন জাহান সিলেট-কোম্পানীগঞ্জ-ভোলাগঞ্জ সড়ক আশু সংস্কারের দাবিতে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার নারী জনপ্রতিনিধিদের পক্ষে ২মাস ব্যাপি ১১দফা কর্মসূচী ঘোষনা করেন। কর্মসূচী হচ্ছে, আগামী ৭ জানুয়ারী সিলেটের জেলা প্রশাসক এর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রীর বরাবরে স্মারক লিপি প্রেরন, ৯থেকে ১৫জানুয়ারী পর্যন্ত সিলেটের আম্বরখানা, ধোপাগুল, সালুটিকরসহ কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গনসংযোগ, ১৮ জানুয়ারী সিলেট নগরীর আম্বরখানা থেকে ভোলাগঞ্জ পর্যন্ত ৪০ কিলোমিটার সড়কে মানববন্ধন,২০ জানুয়ারী সিলেট-ভোলাগঞ্জ সড়কে অবস্থান ও উপজেলার নারী জনপ্রতিনিধিদের প্রতিবাদ, ২২ জানুয়ারী উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধর্মঘট, ২৫ জানুয়ারী সিলেট ভোলাগঞ্জ সড়কে যানবাহন ধর্মঘট, ২৬ থেকে ৩০ জানুয়ারী সড়কের আম্বরখানা, ধোপাগুল, সালুটিকরসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সমাবেশ, ১ থেকে ৫ ফেব্র“য়ারী বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের সাথে মতবিনিময়, ৮ফেব্র“য়ারী সিলেট নগরীর কোর্ট পয়েন্টে সমাবেশ, ১২ ফেব্র“য়ারী সড়ক ও জনপদ বিভাগ সিলেট এবং সিলেটের জেলা প্রশাসক অফিস ঘেরাও এবং ২৫ ফেব্র“য়ারী ঢাকায় প্রধান মন্ত্রী ও সেতুমন্ত্রীর কার্যালয় সম্মুখে অবস্থান ধর্মঘট। আর এ সময়সীমার মধ্যে রাস্তার কাজ শুরু না হলে ১মার্চ থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট এবং সবধরনের পাথর সরবরাহ বন্ধ ঘোষনার আল্টিমেটাম দেন তিনি।

    প্রেসব্রিফিংকারে অন্যদের মধ্যে ছিলেন চেয়ারম্যান যথাক্রমে বাবুল মিয়া, এখলাছুর রহমান, সামছুমিয়া চৌধুরী, অধ্যক্ষ শাকির উদ্দিন,ইউপি সদস্যা যথাক্রমে মিনারা বেগম, মনোয়ারা বেগম, সমরুন নেছা, সুফিয়া বেগম, ফিরোজা খাতুন , আসমা বেগম, রাবেয়া বেগম, দুলবি বেগম, আফিয়া আক্তার , পেয়ারা বেগম, মনোয়ারা বেগম২, হোসনেয়ারা বেগম, সবুতারা বেগম, রাহেনা বেগম, নিরুফা বেগম, কোম্পানীগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবুল হোসেন,যুগ্ন সম্পাদক আবিদুর রহমান, কোষাধাক্ষ্য দেলওয়ার হোসেন, ছাত্রনেতা আনোয়ার হোসেন, দুলাল আহমদ, বেলাল আহমদ, ইনতাজ আলী, আরাফাত মঞ্জিল আনোয়ার, ওমর ফারুক, নিজাম উদ্দিন, মহিউদ্দিস, ফয়ছল আহমদ, এড. নজরুল ইসলাম, বদরুল ইসলাম, শ্রমিক নেতা শেখ তোফায়েল আহমেদ শেফুল, সমাজকর্মী জমির উদ্দিন,আব্দুল আজিজ রাজা , মোমিন মিয়া, আব্দুল আজিজ, যুবনেতা তাজ উদ্দিন তাজই, ময়না দেবনাথ, কবির আহমদ বাবুল প্রমুখ।