খালেদা জিয়া আজ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও যাচ্ছেন

    0
    198

    আমারসিলেট24ডটকম,১৩ডিসেম্বরঃ বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আজ শনিবার নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে কাঁচপুরে যাচ্ছেন। তিনি কাঁচপুরে ২০ দলীয় জনসভায় ভাষণ দেবেন।

    সাবেক প্রধানমন্ত্রী বর্তমান সরকারের দুঃশাসন, অত্যাচার, লুটপাট, খুন, গুম ও হত্যার হাত থেকে দেশ ও জাতিকে রক্ষা, বিদ্যুৎ গ্যাসের দাম বৃদ্ধির চক্রান্ত প্রতিরোধ এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচনের দাবিতে জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ ভাষণ দেবেন বলে বিএনপির নেতারা জানিয়েছেন।

    কাঁচপুর বালুর মাঠে বিকেলে ২০ দলীয় জোটের আয়োজনে এ জনসভায় সভাপতিত্ব করবেন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার।

    ২০১৩ সালের ১ মে কাঁচপুরে বালুর মাঠে সমাবেশের প্রায় দেড় বছর পর শনিবার আবারো সমাবেশ করতে যাচ্ছেন খালেদা জিয়া। এরই মধ্যে দেশের আরো কয়েকটি জেলাতে জনসভা স্থগিত করায় শনিবারের জনসভাকে ঘিরে নেতাকর্মীদের মধ্যে রয়েছে নানা কৌতুহল।

    শনিবার বিকেল সাড়ে ৩টার মধ্যেই সমাবেশে হাজির হবেন বেগম খালেদা জিয়া। বিকেল ৪টার মধ্যে তিনি ভাষণ দেবেন।

    জানুয়ারিতে যে আন্দোলন শুরু করা হবে আজকের  জনসভা সেই ঘোষণা দেবেন বিএনপির চেয়ারপারসন।

    বিএনপির স্থানীয় নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, মূলত নেত্রী জনসভা করে নারায়ণগঞ্জ ও এর আশপাশ এলাকার নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করবেন।

    তিনি জানান, নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন নিয়েও কথা বলবেন বেগম জিয়া। এ খুনের ঘটনায় র‌্যাবের সম্পৃক্ততা থাকায় র‌্যাবের বিলুপ্তি চাইবেন তিনি।

    এদিকে খালেদা জিয়ার জনসভার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। কাঁচপুরে উৎসব আমেজ বিরাজ করছে। জনসভা মঞ্চ ও  এর আশপাশের এলাকায় তোরন, ব্যানার ফেস্টুনে ছেঁয়ে গেছে। জেলার সকল বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে উৎসবের আমেজ।

    অন্যদিরক কাচঁপুরে বেগম জিয়ার জনসভাকে কেন্দ্র করে আইনশৃঙ্খলা, যানজট নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ প্রশাসন। বিএনপি’র চেয়ারপারসন ও ২০ দলীয় নেত্রীর নিরাপত্তায় সিএসএফ এর পাশাপাশি সরকারের বিভিন্ন সংস্থা দায়িত্ব পালন করবে।

    জনসভাকে ঘিরে কোনো দুষ্কৃতিকারী যেন নাশকতা মূলক কর্মকাণ্ড ঘটাতে না পারে সে জন্য পুলিশের পাশাপাশি সমাবেশ স্থলের বিভিন্ন স্থানে ছয়টি সিসি টিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে।

    নারায়নগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার ড.খন্দকার মহিদ উদ্দিন জানান, জনসভা উপলক্ষ্যে পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত থাকবে। জনসভা কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষ চলাচলের ক্ষেত্রে যেন ভোগান্তি না পোহায়। সেজন্য মহাসড়কে পর্যাপ্ত সংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক নিয়োজিত রাখতে বিএনপির নেতাদের প্রতি তিনি বিশেষভাবে অনুরোধ জানান ।