গণতান্ত্রিক রাজনীতির ধারাবাহিকতাকে রক্ষা করতে হবেঃমেনন

    0
    244

    আমারসিলেট24ডটকম,অক্টোবরঃ বিএনপি’র হাত ধরেই এদেশে জঙ্গিবাদের উত্থান ঘটেছিল। এখনও তারা তাদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে চলেছে। আর এই ষড়যন্ত্র এখন আর দেশের সীমানার মধ্যে আবদ্ধ নেই, দেশের বাইরে ভারতের পশ্চিমবাংলাকে কেন্দ্র করে জঙ্গিবাদ বাংলাদেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বিনষ্ট করতে তৎপর। সারদা চিটফাণ্ডের মাধ্যমে বাংলাদেশের জঙ্গিবাদের অর্থায়ন করা হয়েছে। বাংলাদেশের নেতা-নেত্রীদের হত্যার ষড়যন্ত্র উদ্ঘাটিত হয়েছে সম্প্রতি। এর বিপরীতে দাঁড়িয়ে দেশের যুব শক্তিকে আরও অনেক বেশি সংগঠিত ও ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। পাল্টা আঘাত হানবে প্রতিক্রিয়ার দুর্গে।

    আজ ২০০৬ এর ২৮ অক্টোবর বিএনপি’র প্রত্যক্ষ মদতে জামাত-শিবিরের আক্রমণে নিহত বাংলাদেশ যুব মৈত্রীর কর্মী শহীদ রাসেল আহম্মেদ খানের স্মরণসভায় বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি একথা বলেন। জনাব মেনন বলেন, রাসেলের জীবনদানের মধ্য দিয়ে ক্ষমতা থেকে যেতে হয়েছিল বিএনপি-জামাত জোটকে। অগ্রযাত্রা ঘটেছিল অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক রাজনীতি। সেই রাজনৈতিক ধারাবাহিকতাকে যেকোন মূল্যে রক্ষা করতে হবে।

    গতকাল  বিকেল ৪টায় তোপখানা রোডস্থ শহীদ রাসেল মঞ্চে যুব মৈত্রীর সভাপতি মোস্তফা আলমগীর রতনের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় আরও বক্তব্য রাখেন ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য কমরেড নুর আহমদ বকুল, যুব মৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক সাব্বাহ আলী খান কলিন্স, বাংলাদেশ আওয়ামী যুব লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আতাউর রহমান আতা, জাতীয় যুব জোটের সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন, বাংলাদেশ যুব আন্দোলনের সভাপতি মোসাহিদ আহমেদ, ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি বাপ্পাদিত্য বসু, বাংলাদেশ ছাত্র আন্দোলনের সভাপতি মঞ্জুর আহমেদ মিঠু প্রমুখ।