চট্টগ্রামে দাওয়াতে ইসলামীর ৩ দিনের ইজতিমা বুধবার থেকে

    1
    322

    আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১০মার্চঃ এমন এক সময়ে বাংলাদেশে আওলিয়াদের শহর নামে পরিচিত ও খ্যাত চট্টগ্রামের জমিনে দাওয়াতে ইসলামীর ৩ দিনের ইজতিমা চলছে যখন সাড়া পৃথিবিতে চলছে পবিত্র ইসলাম ধর্মের নামে নানা মুখী ব্যবসা,জঙ্গিবাদ,শির্ক, কুফরী,বিদ’আতে সাইয়্যাসহ ধর্ম প্রচারের নামে কাল্পনিক স্বপ্নের চর্চা !

    অপরদিকে বাংলাদেশের মাটিকে ওই সমস্ত পথ হারারা করতে চাই তাদের আবাসস্থল। অন্য দিকে ইসলামকে সঠিকভাবে না বুঝার কারনে বৃদ্ধি পাচ্ছে নাস্তিকবাদের,ঠিক এমনই এক সময়ে পবিত্র ইসলাম ধর্মের মূল ধারা সুন্নাতি ভরা কাফেলা দাওয়াতে ইসলামীর ৩ দিনের ইজতিমা শুরু হতে যাচ্ছে ১১,১২,১৩ ই মার্চ ২০১৫,রোজ বুধ,বৃহস্পতি ও শুক্রবার।

    ইজতেমায় প্রবেশের নকশা
    ইজতেমায় প্রবেশের নকশা

    দাওয়াতে ইসলামীর এক মুবাল্লেগ আমার সিলেট টুয়েন্টি ফোর ডটকমকে বলেন-“৩দিনের তরবিয়্যাতি ইজতিমায় ইনশাআল্লাহ! হাজার হাজার ইসলামী ভাই অংশগ্রহন করবে বলে আশা করা যাচ্ছে।কারন, ইতিমধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ইসলামী ভাইয়েরা পূর্ন প্রস্তুতি নিয়ে রওয়ানা হচ্ছেন ।শুনে খুশি হবেন, অনেক ইসলামী ভাই এখন অন্যান্য দেশে এসে বাংলাদেশে অবস্থান করছেন।আরো শুনে খুশি হবেন, আবুধাবী থেকে চট্টগ্রামের ইজতেমায় যোগদানের জন্য ৩টি বিমান রিজার্ভ করা হয়েছে।এভাবে বিভিন্ন দেশ থেকে বিমান রিজার্ভ করা আছে।আজকে রাতের দিকেই রওয়ানা দিতে পারেন।”

    তিনি আরও জানান,”সাধারনত আজ থেকেই সকলে দলে দলে যোগদান করবে ইনশাআল্লাহ এবং ইজতিমায় লক্ষাধিক ইসলামী ভাইকে ইন্তিজাম করতে শত শত সেনানী ভাই ও মুবাল্লীগগন নিয়োজিত থাকবেন।”
    তিনি আগত মেহমানদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন,”সকল স্বেচ্ছাসেবক ভাইয়েরা তো আর ফেরেশতা নয় যে তাদের মাঝে কোন দোষ থাকবেনা!নিশ্বয়ই মানুষ মাত্রই ভূল হতে পারে! তাই স্বেচ্ছাসেবক ভাইদের কোন ভূলক্রটিতে মনে কোন কষ্ট না নিয়ে আপনারা ইজতিমায় সুশৃংখল ভাবে অবস্থান গ্রহন করবেন।”

    ইজতেমার মূল প্যান্ডেল
    ইজতেমার মূল প্যান্ডেল

    তিনি আরও জানান,ইজতিমার বাইরে বা কোথাও যাওয়ার প্রয়োজন হলে অবশ্যই আপনার এলাকার নিগরান বা জিম্মাদার (আপনার এলাকায় দাওয়াতে ইসলামীর কাজ করে এমন ভাই) থেকে অনুমতি নিয়ে যাবেন।
    তিনি আরও বলেন,কেননা,আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন, যখন তোমরা কোথাও সফর করবে তখন তোমাদের মাঝে কাউকে নেতা বানিয়ে নাও।তাই এ হাদিসের উপর আমল করবেন।
    তিনি আরও জানান,”আর কোন ইসলামী ভাই/সেচ্ছাসেবক এর কোন দোষ বা ভূল দেখতে পেলে তা সরাসরি ঐ ইসলামী ভাইকে বলে দিবেন কখনো নিজেদের মাঝে সমালোচনা করবেন না। কারন রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ ফরমান, যে মুসলিম ভাই তার অন্য কোন মুসলিম ভাই এর গীবত (পরনিন্দা) করল সে যেন তার ভাইয়ের কাচা গোশত খেল।
    তাই কোন মুসলিম ভাই এর দোষ বা ভুলসমূহ নিয়ে সমালোচনা করা থেকে দূরে থাকবেন।”

    উল্লেখ্য  ১১, ১২ ও ১৩ মার্চ২০১৫’তে অনুষ্ঠিতব্য চট্টগ্রামের নূরনগর হাউজিং সোসাইটি মাঠে সুন্নাতে ভরা ইজতিমায় সকলের  সহযোগিতা কামনা করেছেন দা’ওয়াতে ইসলামীর মুবাল্লিগগন।