চুনারুঘাটে টাকা আত্মসাতকারী ছায়েব আলী শ্রীঘরে

    0
    236

    আমারসিলেট 24ডটকম,০৬অক্টোবর,চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃচুনারুঘাট পৌর শহরের উত্তর বাজারের বাসিন্দা ও আবুধাবী ফেরত এবং ৯৬ লাখ টাকা আত্মসাতকারী প্রতারক ছায়েব আলী ওরফে আমীন প্রতারণা মামলায় অবশেষে তার ঠিকানা শ্রীঘরে। জানা যায়, পৌর শহরের উত্তর বাজারের মারিয়া ভিলার স্বত্বাধিকারী ও আবুধাবী ফেরত ছায়েব আলী ওরফে আমীন কয়েক বছর পূর্বে ইটালি ও গ্রীস পাঠানোর নামে উপজেলার ফুলবাড়ী গ্রামের শাহ্ মোঃ আব্দুল হান্নানের ছেলে শাহ্ মোঃ ফারুক কাছ থেকে ৭ লাখ ও চুনারুঘাট সদরের শামছুল ইসলামের নিকট থেকে ৮ লাখ টাকা নেয়।

    টাকা নেওয়ার পর তাদের সাথে প্রতারণা শুরু করে। এরপর ভুক্তভোগীরা প্রাতরক ছায়েব আলীর বিরুদ্ধে এলাকার চেয়ারম্যান মেম্বার ও মুরুব্বীগণদের নিয়ে একাধিক সালিশ বৈঠক বসে। বৈঠকে এর কোন সুরাহা না হওয়ায় উপায়ান্তার হয়ে গত বছরের অক্টোবর মাসে শাহ্ মোঃ ফারুক ও শামছুল ইসলাম হবিগঞ্জ আদালতে প্রতারক ছায়েব আলীর বিরুদ্ধে পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ১০৯/২০১২ ও ১১০/২০১২। ওই মামলায় গত ০৩/১০/২০১৩ইং তারিখে বিজ্ঞ আদালত প্রতারক ছায়েব আলীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করে। গ্রেফতারী পরোয়ানাটি চুনারুঘাট থানায় আসার পর থানা পুলিশ ও র‌্যাব প্রতারক ছায়েব আলীর উত্তরবাজারস্থ বাসাসহ বিভিন্ন স্থানে সারাশী  অভিযান চালায়।

    পুলিশ ও র‌্যাবের অভিযান এড়াতে সে আত্মগোপনে চলে যায়। পরে গতকাল ০৬ অক্টোবর রবিবার হবিগঞ্জ আদালতে আত্মসমর্পন করে। আত্মসমর্পন করলে বিজ্ঞ আদালত প্রতারক ছায়েব আলীর জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। উল্লেখ্য যে, প্রতারক ছায়েব আলী জেলার বিভিন্ন এলাকার অনেক লোকের নিকট থেকে বিভিন্ন দেশে নেওয়ার নামে ৯৬ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। সে বিভিন্ন নামে চলাফেরা করে যেমন গ্রামের বাড়িতে তার নাম ফটিক মিয়া, প্রবাসে আমীন ও বাসায় অবস্থানকালে ছায়েব আলী এবং বিভিন্ন মেয়েদের সঙ্গে দেখা হলে সাগর, জাহাঙ্গীর বলে পরিচয় ব্যবহার করে প্রতারক ও লম্পট ছায়েব আলী।