চুনারুঘাটে ৯৬ লাখ টাকা আত্মসাতকারীর পলায়ন

    0
    227

    আমারসিলেট 24ডটকম,০৫অক্টোবর,চুনারুঘাটপ্রতিনিধি:চুনারুঘাটে ৯৬ লাখ টাকা আত্মসাতকারী ছায়েব আলী ওরফে আমীন পলায়ন করে আত্মগোপন করে। জানা যায়, কয়েক বছর পূর্বে বিদেশ নেওয়ার নামে নরপতি গ্রামের শাহ্ মোঃ ফারুক মিয়া ও শামছুল ইসলামের নিকট থেকে ৯৬ লক্ষ টাকা নেয়। ছায়েব আলী টাকা নেওয়ার পর ফারুক ও শামছুল ইসলামকে বিদেশে না নিয়ে প্রতারণার আশ্রয় নেয়। প্রতারণার শিকার ফারুক ও শামছুল ইসলাম সম্প্রতি হবিগঞ্জ আদালতে তার বিরুদ্ধে একাধিক প্রতারণার মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ১০৯ ও ১১০।

    ওই মামলাগুলোয় প্রতারক ছায়েব আলীর বিরুদ্ধে আদালত গত ৩/১০/২০১৩ইং সমন জারি করে। সমনের তারিখে প্রতারক ছায়েব আলী আদালতে আত্মসমর্পন না করায় ওই দিন বিজ্ঞ আদালত প্রতারকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করে। গ্রেফতার এড়াতে প্রতারক ছায়েব আলী ওরফে আমীন আত্মগোপন করেছে। পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে শারাষী অভিযান শুরু করেছে। উল্লেখ্য, চুনারুঘাট পৌর শহরের উত্তর বাজারের বাসিন্দা ও দুবাই প্রবাস ফেরত মোঃ ছায়েব আলী বিদেশ নেওয়ার নামে বিভিন্ন ব্যক্তির নিকট থেকে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছে।

    এ ব্যাপারে আদালতে একাধিক মামলা রয়েছে। দুর্নীতিবাজ ছায়েব আলী উপজেলার দক্ষিণ নরপতি গ্রামের শাহ্ মোঃ হারুন মিয়া তার বড় ভাই শাহ্ মোঃ ফারুক মিয়া ও শামছুল ইসলাম নামে অপর এক ব্যক্তি থেকে ৮ লাখ টাকা নেয়। টাকা নেওয়ার ১ বছর পরও তাদেরকে বিদেশে না নেওয়ায় হবিগঞ্জ কোর্টে ছায়েব আলীর বিরুদ্ধে প্রতারণার একাধিক মামলা রয়েছে। প্রতারক ছায়েব আলী বিভিন্ন সময় বিভিন্ন নামে পরিচয় দিয়ে বেড়ায়। যেমন গ্রামের বাড়িতে তার নাম ফটিক মিয়া, প্রবাসে আমীন ও বাসায় অবস্থানকালে ছায়েব আলী এবং বিভিন্ন মেয়েদের সঙ্গে দেখা হলে সাগর, জাহাঙ্গীর বলে পরিচয় ব্যবহার করে প্রতারক ও লম্পট ছায়েব আলী।