জনদুর্ভোগ চরমে:আত্রাইয়ে দুই বছরেও সংস্কার হয়নি বন্যায় বিধ্বস্ত সড়ক

0
378
জনদুর্ভোগ চরমে:আত্রাইয়ে দুই বছরেও সংস্কার হয়নি বন্যায় বিধ্বস্ত সড়ক
জনদুর্ভোগ চরমে:আত্রাইয়ে দুই বছরেও সংস্কার হয়নি বন্যায় বিধ্বস্ত সড়ক

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাই উপজেলার ভাঙ্গাজাঙ্গাল হয়ে নাটোর অভিমুখী সড়কটি বন্যায় বিধ্বস্তের দুই বছর পার হলেও তা সংস্কার করা হয়নি। ফলে ওই এলাকার হাজার হাজার মানুষকে যোগাযোগের ক্ষেত্রে চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে।

জানা যায়, ভাঙ্গাজাঙ্গাল-নাটোর রাস্তাটি একটি জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তা। প্রায় দেড় যুগ আগে এ রাস্তার নাটোরের অংশ পাকা করণ করা হয়। ওই সময় থেকেই এ রাস্তা দিয়ে সিএনজি, অটোরিক্সা, ভ্যান, মোটরসাইকেলসহ ছোট বড় বিভিন্ন প্রকার যানবাহন চলাচল শুরু করে।

গত ৫/৬ বছর পূর্বে আত্রাইয়ের অংশও পাকা করণ করা হলে রাস্তাটির গুরুত্ব আরও বেড়ে যায়। এ রাস্তা দিয়ে নাটোরের সাথে যোগাযোগের ক্ষেত্রে ওই এলাকার মানুষের প্রায় ৮/১০ কিলোমিটার রাস্তা কমে যায়। ফলে উপজেলার বিশা, মনিয়ারী ও পাঁচুপুর ইউনিয়নের হাজার হাজার লোক এ রাস্তা দিয়ে প্রতিনিয়ত নাটোর যাতায়াত করে থাকেন।

গত দুই বছর আগে ভয়াবহ বন্যায় রাস্তাটির আত্রাইয়ের অংশে প্রায় আধা কিলোমিটার রাস্তা বিধ্বস্ত হয়ে যায়। রাস্তাটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর অদ্যাবধি এটি সংস্কার করা হয়নি। ফলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এ রাস্তা দিয়ে প্রতিনিয়ত চলছে ছোট বড় যানবাহন। এতে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন ওই এলাকার হাজার হাজার মানুষ। বিশেষ করে বৃষ্টি হলে এ দুর্ভোগ আরও বেড়ে যায়।

এ ব্যাপারে বৈঠাখালী গ্রামের সিএনজি চালক মো. মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, এ রাস্তার আত্রাইয়ের অংশ সংস্কার না হওয়ায় আমরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাই। মাঝে মধ্যেই ছোট বড় দুর্ঘটনা ঘটে থাকে।

এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন খান তোফা বলেন, গত বছর বন্যার পূর্বে স্বেচ্ছাশ্রমে এলাকাবাসীদের সাথে নিয়ে আমি এ রাস্তায় মাটির কাজ করেছিলাম। কিন্তু বন্যায় আবারও ভেঙে গেছে। রাস্তাটির প্রয়োজনয়ী সংস্কারের জন্য উপজেলা পরিষদের সমন্বয় কমিটির সভায় একাধিকবার উপস্থাপন করেছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী জোনায়েত আলম বলেন, রাস্তাটি পুন:নির্মাণের জন্য প্রাক্কলন প্রস্তুত করে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট পাঠানো হয়েছে। এটি অনুমোদন হয়ে বরাদ্দ পেলেই কাজ শুরু করা হবে।