জুড়ী নদীর সেতুর কাজ ১ বছর আগে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও এখনো হয়নি অর্ধেক কাজ

0
613

এম এম সামছুল ইসলাম,জুড়ী (মৌলভীবাজার) : মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলায় জুড়ী নদীর ওপর একটি সেতুর নির্মাণকাজ প্রায় ৬ মাস যাবত বন্ধ রয়েছে। এতে করে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনার সৃষ্টি হয়েছে । আদৌ কি শেষ হবে এ সেতুর কাজ। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ৬০ মিটার দীর্ঘ এ সেতুটির কাজ উদ্বোধন করেন পরিবেশমন্রী আলহাজ শাহাব উদ্দিন এম পি।

এলজিইডি ও এলাকাবাসীর সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কাপনাপাহাড় বাগান এলাকায় জুড়ী নদীর দুই পাড়ের বিভিন্ন এলাকার লোকজন দীর্ঘ দিন ধরে রশি টেনে টেনে নৌকায় করে নদী পার হন। স্থানটি বৃন্দারঘাট নামে পরিচিত। এলজিইডি’র উদ্যোগে  ২০২০ সালের ২৬ অক্টোবর সেখানে ৬০ মিটার দীর্ঘ আরসিসি গার্ডার ‘বৃন্দারঘাট সেতুর’ নির্মাণকাজ শুরু হয়। ৪ কোটি ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘মেসার্স মনির ট্রেডার্স’ নামের ভোলার একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এ কাজ পায়। ২০২১ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর কাজটি সম্পন্নের কথা ছিল। অথচ, এ পর্যন্ত কাজ সম্পন্ন হয়েছে মাত্র ৩৫ শতাংশ। এ দিকে প্রায় ৬ মাস ধরে কাজ বন্ধ। এ অবস্থায় কাজ বাতিলের সুপারিশ করে গত ২২ সেপ্টেম্বর এলজিইডি’র উপজেলা প্রকৌশলী ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে একটি চিঠি পাঠান।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক ভোলা পৌরসভার মেয়র ভোলা জেলা যুবলীগের সভাপতি মোহাম্মদ মরিুজ্জামান মনির। তিনি সম্পর্কে সাবেক মন্ত্রী তোফায়েল আহমদের ভাগনে। এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে ফোনে যোগাযোগের করাহলে মনিরুজ্জামান বলেন,মালামাল পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে শীঘ্রই ব্রিজের কাজ সম্পন্ন করা হবে।