তত্ত্বাবধায়ক সরকার চেয়ে রিট

    0
    260

    আমারসিলেট 24ডটকম,০৩অক্টোবর:তত্ত্বাবধায়ক  নিয়ে যখন মাতামাতি তখনই সুপ্রিম কোর্টের এক আইনজীবী আরো দুই মেয়াদে নির্বাচনকালীন সময়ে তত্ত্বাবধায়ক সরকার চেয়ে একটি রিট আবেদন করেছেন। সাবেক প্রধান বিচারপতি এবিএম খায়রুল হক আরো দু’দফা তত্ত্বাবধায়কের অধীনে নির্বাচন হতে পারে বলে যে মত দিয়েছিলেন তার ওপর ভিত্তি করেই এ রিট করা হয় বলেআদালত সুত্রে জানা যায়,আজ বৃহস্পতিবার আইনজীবী ড. ইউনুস আলী আকন্দ  সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আবেদন জমা দেন। এর আগে ২০১১ সালের ১০ মে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের দেয়া পর্যবেক্ষণ অনুসারে তত্ত্ববধায়ক সরকারের প্রধান হিসাবে সাবেক প্রধান বিচারপতি বা আপিল বিভাগের বিচারপতিকে রাখার বিধান বাদ দিয়ে আগামী (দশম) সংসদ নির্বাচন নির্দলীয় তত্ত্ববধায়ক সরকারের অধীনে অনুষ্ঠানের পদক্ষেপ নিতে নির্দেশনা চেয়েছেন তিনি।
    পর্যবেক্ষণ অনুসারে বাংলাদেশের পরবর্তী দুটি (১০ম এবং ১১তম) সংসদ নির্বাচন নির্দলীয় তত্ত্ববধায়ক সরকারের অধীনে অনুষ্ঠানে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণে বিবাদীদের ব্যর্থতা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না -তা জানতে রুলও চাওয়া হয়েছে এই রিটে । সেইসঙ্গে পরবর্তী দুটি সংসদ নির্বাচন নির্দলীয় তত্ত্ববধায়ক সরকারের অধীনে অনুষ্ঠানে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বিবাদীদের কেন নির্দেশ দেয়া হবে না সে বিষয়েও রুল চেয়েছেন আবেদনকারী।
    প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয়ের সচিব, জাতীয় সংসদের স্পিকার, আইন সচিব, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, প্রধান নির্বাচন কমিশনার, ১৪ দলীয় জোটের নেতা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা এবং ১৮ দলীয় জোটের নেতা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে রিটে বিবাদী করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে আইনজীবী ইউনুস আলী আকন্দ বলেন, হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিট দায়ের করেছি। রিটে নম্বর পড়েছে। এখন যে কোনো একটি বেঞ্চে শুনানি করার চেষ্টা করব। আগামী রবিবারও এ বিষয়ে শুনানি হতে পারে বলে তিনি আশা করেন।