রাষ্ট্রদ্রোহ এবং তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার

    0
    478
    তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার
    তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার

    দৈনিক ‘আমার দেশ’-এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে আজ বৃহস্পতিবার সকাল নয়টার দিকে ‘আমার দেশ’ কার্যালয় থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাঁকে মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে নেওয়া হয়। বেলা আড়াইটার দিকে ডিবি কার্যালয় থেকে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়।
    স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর বলেছেন, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতেই মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
    মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে আজ সকাল ১০টার দিকে ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে উপকমিশনার মাসুদুর রহমান সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন। তিনি জানান, ২০১২ সালের ১৪ ডিসেম্বর তেজগাঁও থানায় করা একটি মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রাষ্ট্রদ্রোহ এবং তথ্যপ্রযুক্তি আইন ২০০৬-এর ৫৬ ও ৫৭ ধারায় মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। নানা ধরনের সমস্যা ও তদন্তের কারণে তাঁকে এত দিন গ্রেপ্তার করা যায়নি বলে জানান উপকমিশনার মাসুদুর রহমান।
    মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তারের নিন্দা জানিয়েছে বিএনপি। রাজধানীর নয়াপল্টনে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আজ বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান বলেন, এভাবে হঠাত্ করে অনেকটা গোপনে মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার করাটা ন্যক্কারজনক। ‘আমার দেশ’-এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের মুক্তি দাবি করেন তিনি।
    মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে ‘আমার দেশ’ পরিবার, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশ রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ করছে। বেলা একটার পর সমাবেশ শুরু হয়। সমাবেশ থেকে বলা হয়েছে, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মাহমুদুর রহমানকে মুক্তি না দিলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে। সমাবেশের কারণে প্রেসক্লাব এলাকায় যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।
    মাহমুদুর রহমানের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে আজ রাজধানীর কামরাঙ্গীচরে খেলাফত আন্দোলনের নেতা-কর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল করছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।