তার দেয়া উপহার নেয়ার প্রশ্নই আসে না : রনি

    0
    223

    ঢাকা, ০৯ আগস্ট  : কাশিমপুর কারাগারের ‘কারা প্রতিবেশি’ স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী  লুৎফুজ্জামান বাবরের দেয়া উপহার ফিরিয়ে দিলেন  সংসদ সদস্য গোলাম মাওলা রনি। গোলাম মাওলা রনি জানিয়ে দিলেন, প্রতিপক্ষের একজন ‘বিতর্কিত’ রাজনীতিকের কাছ থেকে উপহার নেয়া যে সরকার দলীয় একজন সংসদ সদস্যের জন্য বেমানান- সে কথাটিই।
    ভিআইপি বন্দি হিসেবে ডিভিশন পেয়েছেন বাবর। কারাগারের পার্ট-১ এ আছেন তিনি । তার বিরুদ্ধে ১০ ট্রাক অস্ত্র ও ২১ আগস্টে গ্রেনেড হামলার মামলা রয়েছে। দুটি মামলাতেই তার বিচার চলছে। অন্যদিকে সাংবাদিক পেটানোর অভিযোগে হত্যা চেষ্টা মামলায় কারাগারে আছেন সাংসদ রনি। তিনিও ডিভিশন পেয়েছেন। তাকে রাখা হয়েছে কাশিমপুর কারাগারের পাট-২ এর সুরমা ভবনে।
    গাজীপুরের কাশিমপুর কারা সূত্রে জানা গেছে, পাঞ্জাবি কিনিয়ে এনে সংসদ সদস্য গোলাম মাওলা রনির কাছে পাঠিয়ে ছিলেন  উপহার হিসেবে। কিন্তু সংসদ সদস্য রনি তা নেননি। বরং উপহার বাহকের তিনি বলেছেন, ‘লুৎফুজ্জামান বাবর ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার আসামি। তার দেয়া উপহার নেয়ার প্রশ্নই আসে না।’ রাজনৈতিক নীতি আদর্শের ব্যাপারে কোনো ছাড় দিতে রাজি নন বলেও স্পষ্ট জানিয়ে দেন রনি।
    রনির এ ব্যবহারে কষ্ট পেয়েছেন বাবর। তিনি আক্ষেপ করে বলেছেন, ‘ঈদে বন্ধু-শত্রু সবাই এক। এখানে রাজনৈতিক পরিচয়কে বড় দেখার সুযোগ নেই। তিনি অযথাই বিভেদ সৃষ্টি করছেন।’
    কাশিমপুর কারাগারের পার্ট-২ এর জেলার সুভাষ ঘোষ  জানান, একে অন্যের মধ্যে উপহার বিনিময়ের বিষয়টি আমার জানা নেই। তারা এ ব্যাপারে কারা কর্তৃপক্ষকে কিছু জানাননি। তবে ডিভিশন প্রাপ্ত বন্দি হিসেবে একে অন্যের মধ্যে উপহার বিনিময় খুব একটা অস্বাভবিক নয়। তিনি জানান, কারাবন্দিদের জন্য বিশেষ খাবারের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া সবাই একসঙ্গে ঈদের জামাত আদায় করবেন। তারা একে অপরের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। ঈদের কারণে কারা বিধি কিছু শিথিল করা হয় বলে জানান তিনি।