তার হুকুমেই মানুষ পুড়ে অঙ্গার হচ্ছেঃপ্রধানমন্ত্রী

    0
    224

    “অত্যন্ত দুঃখজনক ব্যাপার, ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আগেও একইভাবে শত শত মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। সারা জীবনের জন্য অনেককে পঙ্গু করে দিয়েছে। অনেক পরিবার আজকে ধ্বংসের মুখে”

    আমারসিলেট24ডটকম,২১জানুয়ারীঃ বিএনপিসহ ২০ দলের চলমান হরতাল-অবরোধকে অযৌক্তিক আন্দোলন হিসেবে দাবি করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এ আন্দোলনে সাধারণ মানুষের হতাহতের ঘটনায় বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি হিসেবে আইনের আওতায় আনা যুক্তিযুক্ত। এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ব্যবস্থা্ নেবে বলে সংসদকে জানান তিনি।

    আজ বুধবার দশম জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশনে এ বি তাজুল ইসলামের (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬) এক জিজ্ঞাসার জবাবে সংসদকে এ কথা জানান প্রধানমন্ত্রী। বিকালে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হয়।

    এ বি তাজুল ইসলাম দেশের বর্তমান পরিস্থিতির জন্য বিএনপির চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে কি না- এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে জানতে চান।

    প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপির নেত্রী আন্দোলনের নামে মানুষ হত্যা শুরু করেছে। মানুষ পুড়িয়ে মারা শুরু করেছে। এটাই বড় প্রশ্ন, কেন খালেদা জিয়া মানুষ হত্যায় নেমেছেন। কেন তিনি নিরীহ মানুষ, সাধারণ মানুষ, গরিব মানুষ, খেটে খাওয়া মানুষ যারা বাসে চড়ে, ট্রেনে চড়ে তাদের ওপর এখন এ আক্রমণ চালাচ্ছে, এটা আমার বোধগম্য নয়।

    প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি এখন (খালেদা) বাড়িঘর ছেড়ে অফিসে বসে হুমুক দিচ্ছেন। তার হুকুমেই মানুষ এভাবে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে অথবা পুড়ে অঙ্গার হচ্ছে। কাজেই হুকুমের আসামি হিসেবে তাকে আইনের আওতায় আনাই হবে যুক্তযুক্ত। তবে আইন তার আপন গতিতে চলবে এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থা এটা যাছাই করে দেখবে এবং তারপর ব্যবস্থা নেবে।

    প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, অত্যন্ত দুঃখজনক ব্যাপার, ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আগেও একইভাবে শত শত মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। সারা জীবনের জন্য অনেককে পঙ্গু করে দিয়েছে। অনেক পরিবার আজকে ধ্বংসের মুখে। ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের পর পরিস্থিতির উন্নয়ন হয় এবং আমরা উন্নয়মূলক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি।

    প্রধানমন্ত্রী জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, সন্ত্রাসীদের যেখানে পাবেন ধরে পুলিশে সোপর্দ করুন।