দেশের বর্তমান সঙ্কটে সংলাপই একমাত্র সমাধান : ড্যান ডব্লিউ মজিনা

    0
    485

    রাঙামাটি : বাংলাদেশের স্বার্থেই সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। দেশের বর্তমান সঙ্কটে সংলাপই একমাত্র সমাধান বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজিনা। সোমবার মারমা সাংস্কৃতিক সংস্থার উদ্যোগে মারমা সম্প্রদায়ের সাংগ্রাই জল উৎসবে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘এদেশের জনগণ চমৎকার । এখানকার জনগণের কর্মশক্তি, উদ্যোক্তাদের দক্ষতা, কষ্ট সহিষ্ণুতা বিশ্বের কোথাও দেখা যায় না।’ ঐক্যবদ্ধতাই এ দেশকে এশিয়ার উদীয়মান বাঘে পরিণত করবে বলে উল্লেখ করেন তিনি। মজিনা বলেন, ‘আমরা প্রত্যেকে সংকল্প করি, আমাদের সমস্ত উদ্যমকে যেন বাংলাদেশের ঐক্যের জন্য কাজে লাগাই, তা যেন বিভাজনে না হয়।’ প্রধান অতিথি হিসেবে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদারের উপস্থিতিতে এসময় মার্কিন রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশকে নিয়ে তার স্বপ্ন আর উচ্ছ্বাসের কথা জানান। তিনি নববর্ষ উদযাপনের সঙ্গে সঙ্গে সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান মার্কিন রাষ্ট্রদূত। এসময় উপস্থিত ছিলেন- রাঙামাটি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার সারোয়ার হোসেন, জেলা প্রশাসক মোস্তাফা কামাল, পৌর মেয়র সাইফুল ইসলাম ভুট্টো, উপজেলা চেয়ারম্যান মুছা মাতব্বর, জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট দীপেন দেওয়ান। সোমবারের উৎসবে মারমাদের ঐতিহ্যবাহী গান, নাচ আর জলকেলিতে মুখর হয়ে ওঠে পুরো উৎসব চত্বর। হাজারো তরুণ-তরুণী জানালেন নিজেদের উচ্ছ্বাস আর আনন্দের কথা। একে অপরের প্রতি পানি ছুড়ে দিয়ে ভালোবাসা আর মুগ্ধতার কথাই যেনো জানালেন তারা। সাংগ্রাই জল উৎসব উদযাপনের সময় মারমা যুবক-যুবতীরা পিঠা তৈরি করার জন্য চালের গুড়া তৈরি করে। এসময় ‘পানি খেলা’ হয়। সোমবার সাংগ্রাই জল উৎসব ছিল পাহাড়ি-বাঙালি সব সম্প্রদায়ের মিলনমেলা।মারমা তরুণ-তরুণীরা পানি খেলায় একে অপরের প্রতি পানি ছুড়ে তাদের ভালোবাসার অনুভূতি প্রকাশ করে। পরম স্নিগ্ধতায় ভিজিয়ে দেয় পরস্পরকে। সকাল থেকেই রাঙামাটি শহরের সব জনস্রোত ছিল শহরতলির আসামবস্তিমুখী। সেখানে হাজারো মানুষের উচ্ছাসের মধ্য দিয়ে পালিত হয় সাংগ্রাই জল উৎসব।