নড়াইলে দুর্বৃত্তরা একচাষীর পানের বরজ পুড়িয়ে দিয়েছে!

0
45
দুর্বৃত্তরা আগুনে পানের বরজ চাষীর স্বপ্ন বিনাশ

নড়াইল জেলা প্রতিনিধি: নড়াইলের বোড়া বাদুড়িয়ায় পান চাষী কার্তিক কর এর পানের বরজ পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

আজ শুক্রবার ২৬ এপ্রিল ভোর রাতে সদর উপজেলায়  আউড়িয়া ইউনিয়নের বোড়া বাদুড়িয়া গ্রামে ঘটনা ঘটে। ৪০ শতক জমির পানের বরজ পুড়ে যাওয়ায় আনুমানিক ১০ থেকে ১২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী কার্তিক কর।

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক কার্তিক কর বোড়া বাদুড়িয়া গ্রামের মৃত রামপদ করের ছেলে। পরিবারের জীবিকা নির্বাহের একমাত্র অবলম্বন পানের বরজ পুড়িয়ে দেয়ায় পান চাষীর মাথায় যেন আকাশ ভেঙে পড়েছে। সব হারিয়ে দিশেহারা পান চাষী কার্তিক।

স্থানীয়রা জানান, কার্তিক কর ৪০ শতক জমিতে পানের বরজে পান চাষ করে আসছিলেন। বরজের পান বিক্রি করেই চালাতেন তার সংসার। শুক্রবার ভোর রাতে দুর্বৃত্তরা তার পানের বরজে আগুন ধরিয়ে দেয়। ঘটনায় কৃষকের আনুমানিক ১০ থেকে ১২ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

বিষয়ে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক কার্তিক কর জানান, শুক্রবার সকালে বরজে পান ভাঙতে গিয়ে দেখি কে বা কারা আমার পানের বরজে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। আমি পুরো নিঃস্ব হয়ে গেছি। বরজের পান বিক্রি করেই চলতো আমার সংসার। এর আগেও আমার এই পানের বরজ থেকে পান চুরি হয়ে যেত। আমি এখন কিভাবে সংসার চালাবো। আমি ঘটনার বিচার চাই।

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক কার্তিকের ছোট ভাই মিন্টু কর জানান, গত বছরের ২৬ অক্টোবরে আমার বাড়ি থেকে পাঁচটি গরু চুরি হয়ে গেছে। আজ আমার দাদার পানের বরজে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। আমরা এখন পুরো নিঃস্ব হয়ে গেছি।

ব্যাপারে নড়াইল সদর উপজেলার আউড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম পলাশ বলেন ,আমার এলাকায় কৃষক কার্তিকের পানের বরজে কে বা কারা আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে, ঘটনা শোনার পর আমি ঘটনাস্থল গিয়ে  ভুক্তভোগীদের সাথে কথা বলেছি। কার্তিক ওই জমিতে বরজ করেই তার সংসার চালাতো। ঘটনাটি দুঃখজনক। এই কাজ টা যারাই করে থাকুক তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিষয়ে নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.সাইফুল ইসলান জানান, ‘প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা যাচ্ছে যে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দুর্বৃত্তরা পানের বরজে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। আমিসহ বিট অফিসার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এখন পর্যন্ত ঘটনায় কোন অভিযোগ পাইনি, অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।