নড়াইলে সেনাবাহিনী প্রধানের “নড়াইল রেল ষ্টেশন” পরিদর্শন

0
63

নড়াইল প্রতিনিধি: কাজের গতিতে আমি সন্তুষ্ট , নির্ধারিত সময়ের আগেই এ প্রকল্প কাজ শেষ হবে , আগামী জুনে এ প্রকল্প শেষ হওয়ার কথা ছিল, আমরা আশা  করছি এপ্রিলের মধ্যেই এ কাজ শেষ হবে। কাজ শেষ হলেই উদ্বোধন। সময়ের আগে যখন শেষ হচ্ছে , তাই কাজের গুনগত মান  দেখতেই আমার এ পরিদর্শন এবং নড়াইলের কোন কাজ সুন্দর ভাবে হোক এটাই আমি  সব সময় চেয়েছি, আজকে সজেমিনে পরিদর্শন করে আমি খুব খুশি। আমাদের উপর/ সেনাবাহিনী উপর যে আস্থা রাখা হয়েছে সে আস্থার প্রতিদান হিসাবে আমরা সময়ের ভিতরে ,গুনগত মান ঠিক রেখে কাজটা সম্পন্ন করে দিতে পরবো—বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন

মঙ্গলবার বেলা ১১ টার  দিকে  নড়াইল পৌর এলাকার দূর্গাপুরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্বাবধানে পদ্মাসেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের নির্মানাধীননড়াইল রেল ষ্টেশন”  পরিদর্শন কালে কথা বলেন।

পরে  তিনি রেল ষ্টেশনের পাশে দুর্গাপুরডুমুরতলায় অবস্থিত ইবিসি কনস্ট্রাকশন কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে হেলিকপ্টার যোগে  লোহাগড়ায় যায়। লোহাগড়ায় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে মধুমতি আর্মি ক্যাম্পে দুঃস্থঅসহায়দের মাঝে কম্বল বিতরণ , লোহাগড়া করফাতে একটি মসজিদের উদ্বোধন শেষে মল্লিকপুর সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের  বিভিন্ন স্থাপনা কাজের উদ্বোধন করেন।

সময় ৫৫ পদাতিক ডিভিশন যশোর এর জিওসি মেজর জেনারেল মোহাম্মদ মাহবুবুর রশীদসহ সেনাবাহিনী পদস্থ কর্মকর্তাগননড়াইল পৌর মেয়র আঞ্জুমান আরা সময় উপস্থিত ছিলেন।

পদ্মাসেতু রেল সংযোগ প্রকল্পটি দুটি ফেইজে বিভক্ত। প্রথম ফেইজে ঢাকা থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত এবং দ্বিতীয় ফেইজে ভাঙ্গা থেকে নড়াইল হয়ে যশোরের সিঙ্গিয়া জংশন পর্যন্ত। ঢাকা থেকে যশোরের সিঙ্গিয়া পর্যন্ত মোট ১৬২ দশমিক ৫শকিলোমিটার রেল লাইন স্থাপনে ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৯ হাজার ২৪৬ দশমিক ৮০ কোটি টাকা। এর মধ্যে ভাঙ্গা থেকে যশোরের সিঙ্গিয়া পর্যন্ত ৮০কিলোমিটার রেল লাইন স্থাপনে ব্যয় হবে ১০ হাজার ৫শত কোটি টাকা। প্রথম ফেইজের নির্মান কাজ সম্পন্নের পর নিয়মিত রেল চলাচল শুরু হয়েছে। দ্বিতীয় ফেজের অংশের  ইতি মধ্যে রেল পাটি বসানোর কাজ প্রায় শেষ হয়েছে ভাঙ্গা থেকে যশোর পর্যন্ত রেল লাইনে থাকবে মোট ১০টি স্টেশন। বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃক নিযুক্ত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (সিআরসি) রেলরাইনের নির্মান কাজ বস্তবায়ন করছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রকল্পের পরামর্শক হিসেবে নিয়োজিত রয়েছে