নবীগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রপে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় আহত-১০

0
71

নূরুজ্জামান ফারুকী,বিশেষ প্রতিনিধি: আওয়ামী লীগ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিলকালে নবীগঞ্জে ছাত্রলীগের
দুটি গ্রুপে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে । এতে উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছে। এসময় দুটি দোকান ভাঙচুর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরীর মনোনয়ন দাখিলের প্রস্তুতি চলছিল। বেলা ১১টায় নাজিম উদ্দীনের নেতৃত্বে একটি গ্রুপ স্থানীয় মুসলিম সুইট এবং জাহেদ রুবেলের নেতৃত্বে একটি গ্রুপ লতিফ সুপার মার্কেটের নিকট অবস্থান নেয়। একপর্যায়ে রামদা-লাটিসোঁটা নিয়ে উভয়ের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া শুরু হয়। প্রায় এক ঘণ্টা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া চলে।
এসময় লতিফ সুপার মার্কেটের দুটি দোকান ভাঙচুর করা হয়। উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হন। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

এ ব্যাপারে নাজিম উদ্দীন অভিযোগ করে বলেন, তারা শান্তিপূর্ণ অবস্থানকালে জাহেদ রুবেলের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ নামধারী কতিপয় দুর্বৃত্ত ছাত্রলীগকর্মী আজগর ও ইমনের ওপর হামলা চালায়।

অভিযোগ অস্বীকার করে জাহেদ রুবেল বলেন, তাদের কর্মীদের ওপর নাজিম উদ্দীনের নেতৃত্বে কতিপয় কর্মী ইট-পাটকেল ছুড়তে থাকে। তারা লতিফ সুপার মার্কেটর নানু ও ছমির মিয়ার দোকান ভাঙচুর করে। এতে তাদের ৩/৪ কর্মী আহত হয়।

নাজিম উদ্দীন ও জাহেদ রুবেল উভয়ই নিজেদের নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক দাবি করেন।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ওসি মাসুক আলী বলেন, পুর্ববিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।