নবীগঞ্জে জব্দ বালু-মেশিন নিলামে ২৮ লক্ষ টাকায় বিক্রি

    2
    276

    আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৯মার্চ,মতিউর রহমান মুন্নাঃ নবীগঞ্জর বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ড এলাকায় কুশিয়ারা নদী থেকে অবৈধভাবে ডেজার দ্বারা জব্দকৃত বালু,একটি ডেজার মেশিন, ১৯৬টি পাইপ গতকাল রোববার নিলামে বিক্রি করা হয়েছে। মোট ৫৫জন দরদাতা নিলামে অংশ গ্রহণ করেন। সর্বচ্চো দরদাতা হিসেবে সুজাত চৌধুরী ২৮লক্ষ ২০হাজার টাকায় জব্দকৃত মালামাল ক্রয় করেন।

    উল্লেখ্য,গত ৩মার্চ নবীগঞ্জের বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ডের নর্থ প্যাড এলাকায়  হবিগঞ্জ ও সুনামগঞ্জ জেলার প্রশাসনের যৌথ অভিযানে  দ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে  প্রায় ৪০/৪৫হাজার ঘনফুট কুশিয়ারা নদী থেকে অবৈধভাবে উত্তোলনকৃত বালু,একটি ড্রেজার মেশিন,সংযুক্ত বালু উত্তোলনের ১৯৬টি পাইপ জব্দ করা হয়। অভিযানে নেতৃত্বে ছিলেন হবিগঞ্জ জেলার নির্বাহী ম্যািেজষ্ট্রেট মোহাম্মদ নুরুজ্জামান,জগন্নাথপুর সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট রফিকুল ইসলাম। গতকাল রোববার মাননীয় আদালতের আদেশের মাধ্যমে জব্দকৃত মালামাল নিলামের তারিখ পত্রিকায় বিঞ্জপ্তি প্রকাশ করে জানিয়ে দেয়া হয়।

    রোববার বিকেল ৩টার সময় কয়েক শত লোকের উপস্থিতিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ লুৎফর রহমান ৬টি লটে বালুর পরিমান নির্ধারন করেন প্রায় ৪১হাজার ঘনফুট। এর পরই নিলামের কার্য্যক্রম শুরু হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ জেলার নির্বাহী ম্যািেজষ্ট্রেট মোহাম্মদ নুরুজ্জামান,নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো: লিয়াকত আলীসহ পুলিশ সদস্যবৃন্দ। এদিকে নিলামের খবরে হবিগঞ্জ জেলা ও নবীগঞ্জ উপজেলার রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ অংশ নিতে বিবিয়ানা এলাকায় আসেন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিলামে বালুর মুল্যে নির্ধারন করা হয় ১কোটি ৬৬ লক্ষ টাকা ও ড্রেজার মেশিন ও পাইপের মুল্যে ১০লক্ষ করে ২০লক্ষ টাকা নির্ধারন করা হয়।

    ৫৫জন দরদাতাদের মধ্যে ৫লক্ষ ১টাকা থেকে শুরু করে সবাই অংশ গ্রহন করেন। রাত ৮টা পর্যন্ত চলে নিলামের কার্য্যক্রম। সর্বশেষ সর্বচ্চো দরদাতা হিসেবে দীঘলবাক গ্রামের সুজাত চৌধুরী ২৮লক্ষ ২০হাজার টাক বলার পর নিলামে আর কেউ অংশ না নেয়ায় জব্দকৃত মালামার তিনিই ক্রয় করেন। সাথে সাথে সুজাত চৌধুরী সব টাকা প্রশাসনের কাছে পরিশোধ করেন।

    প্রেরক

    মতিউর রহমান মুন্না