নবীগঞ্জে শেখ হাসিনা-খালেদাকে প্রাণনাশের হুমকিঃগ্রেফতার-১

    0
    308

    আমারসিলেট24ডটকম,২৮ডিসেম্বর,মতিউর রহমান মুন্নাপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অবৈধ প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে বেনজীর ভুট্রোর পরিনতি হবে উল্লেখ করে অশ্লীল ভাষায় মন্তব্য করায় গতকাল পল্লী চিকিৎসক ফজলুল হক (৩০) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ফজলুল হক উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের সুজাপুর গ্রামের মাওঃ জালাল উদ্দিনের ছেলে।

    পুলিশ সুত্রে জানা যায়, ডাঃ মোহাম্মদ ফজলুল হক তার নিজ নামীয় ফেইসবুক আইডিতে গত ২১ ডিসেম্বরে একটি স্ট্যাটাস এ বলেন, “বাংলাদেশ আজ কথিত রাজনৈতিক বেশ্যাদের হাতে জিম্মি, অবৈধ অনৈতিক দখলদার রাজনৈতিক দুবৃর্ত্তরা তাদেও মন খুশিতে দেশ পরিচালনা করছে। আজ অবৈধ রাজকর্তাদেও মুখে পতিতা, খানকিদেও ভাষা বেহায়া বেলাজ হয়ে গেছে। অনেক আগেই অবৈধ দখলদার আওয়ামী উম্মাদ মন্ত্রীরা শিষ্টাচার ভুলে গেছে, নোংরামীতে তারা বাংলা ব্যাকারণ অনেক আগেই ছাড়িয়ে গেছে। অবৈধ স্বঘোষিত পিএম হাসিনার বক্তব্য ও লাগামহীন বাচালের মত উনার বক্তব্যেও মধ্যে পিএম সুলভ কিছু নেই। উনি রাজনৈতিক নোংরামীতে নিজেকে ল্যাংটা করে দিতেছেন। হাসিনার কন্ঠ শুনলেই অনেকেই থুথু ফেলছে। অনেকেই বলে হাসিনা নারী জাতের কলংক”।

    তিনি আরও লিখেন,”তোরে কি আজরাইল দেখে না, তোর লাগি কি মরন আসে না। কেউ বেড রোমের বক্তব্য দিয়ে দেয় যা লেখার অযোগ্য। আজ শেখ হাসিনা নিকৃষ্ট জীবের মতো গন্ধ ছড়াচ্ছে”। এ রকম একাধিক স্ট্যাটাসে শেখ হাসিনাকে নিয়ে অশালীন ভাষায় তীব্র সমালোচনা করেন পল্লি চিকিৎসক ফজলুল হক।

    তিনি অপর একটি স্ট্যাটাসে বিএনপির নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বলেন, “পাকিস্তানের বেনজির ভুট্রোর ভাগ্য বরণ করে মৃত্যু ঘটলে বিএনপির নেতৃত্ব কি হবে” উম্মা প্রকাশ করে একই স্ট্যাটাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়েও অস্লীল ভাষায় সমালোচনা করেন।

    এ সব বিষয় আইনশৃংখলা বাহিনীর দৃষ্টিতে আসলে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ লিয়াকত আলীর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল অনুসন্ধান চালিয়ে ঘটনার সত্যতা পায়। এর প্রেক্ষিতে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় পুলিশ তিমিরপুরস্থ ফজলুল হকের প্রাইভেট চেম্বার থেকে তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসেন।

    এ সময় সে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ফেইস বুক স্ট্যাটাসে তার লেখা বলে স্বীকার করেছে। এ ব্যাপারে রাতে নবীগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওহী দেওয়ান চৌধুরী বাদী হয়ে থানায় সংশি¬ষ্ট ধারায় মামলা দায়ের করেছেন।

    আর আগে ফেইস বুকে হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি এড. আবু জাহিরকে নিয়ে ফেইস বুকে অশালীন মন্তব্য করায় গত বৃহস্পতিবার ইনাতগঞ্জ বাজার থেকে পুলিশ মিনার নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে।

    এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ লিয়াকত আলী বলেন, এই অভিযান শেষ অভিযান নয়, আরো যারা ফেইস বুক স্ট্যাটাসে এ রকম জাতীয় নেতা নেত্রীদেও নিয়ে অশালীন ভাষা করবে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে। এবং ফেইক আইডির ব্যাপারটিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।