নিজের সন্তানকে গরম পানিতে জ্বলসে দিয়েছে পিতা

    0
    253
    আমারসিলেট24ডটকম,২৫জানুয়ারী,তফিদুর রহমান তালুকদার তৌফিকঃ হবিগঞ্জের বাহুবলে নেশার টাকার জন্য শিশুকন্যার গায়ে গরম পানি ঢেলে জ্বলসে দিয়েছে এক পাষন্ড পিতা। উর্মি নামে তিন বছর বয়সী ওই শিশু এখন যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে। ঘটনার প্রেক্ষিতে সোহেল মিয়া নামে ওই পাষন্ডকে পুলিশে ধরিয়ে দিয়েছেন তারই মা।
    ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার আলাপুর প্রকাশিত ভেড়াখাল গ্রামে রোববার (২৫ জানুয়ারী) সকাল ৮টার দিকে।
    স্থানীয় লোকজন জানান, বাহুবল উপজেলার আলাপুর প্রকাশিত ভেড়াখাল গ্রামের মৃত শফিক মিয়ার পুত্র সোহেল মিয়া (২৮) একজন মাদকসেবী ও জোয়াড়ি। জুয়া ও নেশার টাকা পকেটে না থাকলে সে উন্মাদ হয়ে যায়। হিতাহিত জ্ঞানশূন্য অবস্থায় কিছুদিন পূর্বে সে নেশার টাকার জন্য তারই স্ত্রী খরফুলনেছাকে ছুরিকাঘাত করে। ভয়ে কন্যা সন্তান উর্মিকে ফেলে রেখেই পিত্রালয়ে আশ্রয় নিয়েছে খরফুলনেছা।
    রোববার সকাল ৮টার দিকে সোহেল মিয়ার মা দুধার মা বেগম চা তৈরির জন্য চুলায় পানি ফুটাতে শুরু করেন। তখন পাশে বসা ছিল ৩ বছর বয়সী নাতনি উর্মি। এ অবস্থায় সোহেল মিয়া ঘুম থেকে উঠে এসে মা দুধার মা বেগমের কাছে নেশার টাকা দাবি করে। টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় সোহেল মিয়া রাগান্বিত হয়ে ফুটানো পানি তারই কন্যা উর্মির গায়ে ঢেলে দেয়।
    এতে শিশু উর্মির শরীরের অধিকাংশ ত্বক জ্বলসে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে বাহুবল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে দুধার মা বেগম স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় মাদকসেবী পুত্র সোহেল মিয়াকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। এ ব্যাপারে তিনি বাহুবল মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।