পর্দার নবাব খ্যাত আনোয়ার হোসেনের জীবনে ইতি

    0
    240

    আমারসিলেট 24ডটকম , সেপ্টেম্বর  :  অবশেষে চলে গেলেন বাংলা সিনেমার কিংবদন্তি অভিনেতা আনোয়ার হোসেন(ইন্না লিল্লাহে ——-রাজিউন)। পর্দার নবাব খ্যাত আনোয়ার হোসেন অর্ধ শতকেরও বেশি বছর ধরে বাংলা চলচ্চিত্রে সরব পদচারণার পর জীবনের ইতি টেনেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত আড়াইটার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় এ অভিনেতার। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৮২ বছর। তার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। এর আগে বৃহস্পতিবার বিকেলে স্কয়ার হাসপাতালে তিনি তাকে দেখতে যান এবং তার চিকিৎসার খোঁজখবর নেন। তখন তিনি তার আত্মীয়দের হাতে ১০ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করেন।
    স্কয়ার হাসপাতালের চিকিৎক ডা. মির্জা নাজিমুদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, গতকাল রাত প্রায় আড়াইটার দিকে তিনি মারা যান। তিনি বেশ কিছু দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপসহ বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন এ কিংবদন্তি অভিনেতা। গতকাল রাতে এ গুণী অভিনেতার লাশ স্কয়ার হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়। শিল্পীর স্ত্রী নাসিমা আনোয়ার, ছেলে-মেয়ে ও আত্মীয়-স্বজনসহ তার অনেক ভক্ত সাধারণ হাসপাতালে অবস্থান করছেন। আজ শুক্রবার বাদজুমা জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম মাসজিদে জানাজা শেষে তাকে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

    কিংবদন্তি অভিনেতা আনোয়ার হোসেন তার অভিনয় জীবনের স্বীকৃতি হিসাবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১০, আজীবন সম্মাননা, পাকিস্তানের নিগার ও বাচসাস পুরস্কার অর্জন করেন। অভিনেতা আনোয়ার হোসেন চলে গেলেও বাংলা চলচ্চিত্রের দর্শকরা তাকে আজীবন মনে রাখবে।

    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শোক
    আজ বৃহস্পতিবার এক শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, আনোয়ার হোসেন বাংলা চলচ্চিত্রের মুকুটহীন সম্রাট হিসেবে খ্যাত ছিলেন। তিনি ছিলেন বহুমুখী প্রতিভাধর ও বাংলা চলচ্চিত্রের অপ্রতিদ্বন্দ্বী অভিনেতা। তিনি বলেন, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুতে দেশ একজন অন্যতম শ্রেষ্ঠ অভিনেতা, সংস্কৃতি কর্মী ও দেশপ্রেমিককে হারালো। তার মৃত্যু দেশের চলচ্চিত্র শিল্প ও জাতির জন্য বিরাট ক্ষতি। প্রধানমন্ত্রী তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। তিনি গতকাল স্কয়ার হাসপাতালে অসুস্থ অভিনেতাকে দেখতে যান। তিনি তার চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তাও দেন। নবাব সিরাজউদদৌলা চরিত্রে অনন্য অভিনয়ের জন্য আনোয়ার হোসেন ব্যাপক খ্যাতি অর্জন করেছিলেন।