পারস্পরিক সহযোগিতায় কাজ করলে মামলার জট কমবে:জেলা জজ

    0
    211

    আমারসিলেট24ডটকম,২৯নভেম্বরঃ সিলেটের জেলা ও দায়রা জজ মো: মিজানুর রহমান বলেছেন, বিচার কাজে নিয়োজিত সকলে পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে কাজ করলে মামলার জট কমবে। বাদি এবং আসামী উভয়ই চায় ন্যায় বিচার। ন্যায় বিচারের স্বার্থে তদন্ত কাজে নিয়োজিতরা সঠিকভাবে তদন্ত করলে, তদন্তকারী কর্মকর্তা স্বাক্ষি দিলে, সঠিক সময়ে মেডিকেল রিপোর্ট আসলে কম সময়ের মধ্যে একটি মামলা নিস্পতি করা সম্ভব। গতকাল শনিবার সকালে জজ কোর্টের কনফারেন্স হলে সিলেট জজ কোর্টের বিচার বিভাগীয় সম্মেলণ ২০১৪ এর সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

    সিলেটের যুগ্ন-জেলা দায়রা জজ মো: রকিবুল ইসলামের পরিচালনায় সম্মেলণে বক্তব্য রাখেন- নারী ও শিশু নির্যাতন আদালতের বিচারক আব্দুল আজিজ মন্ডল, দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালের বিচারক দিলিপ কুমার, জন নিরাপত্তা আদালতের বিচারক মইদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ মঈন উদ্দিন আহমদ, যুগ্ম ও জেলা দায়রা জজ ২য় আদালত মাসুদ করিম, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাহমিদা কাদের, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল কাদের, বিচারক দিলওয়ার হোসেন শামীম, সিলেটের জেলা প্রশাসক মো: শহীদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হাসান মাহমুদ, মহানগর পুলিশ কমিশনার মো: কামরুল হাসান, জেলা পুলিশ সুপার নূরে আলম মিনা, জজ কোর্টের এডিশনাল পিপি মো: শামছুল ইসলাম, দুদক সিলেটের পরিচালক মো: আবুল হাসান, অধ্যাপক ডা. আবুল মনসুর, জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি আফম রুহুল আনাম চৌধুরী মিন্টু, র‌্যাব ৯ সিলেটের এএসপি জালাল উদ্দিন, বিজিবির নাসিম হোসেন চৌধুরী প্রমুখ।

    জেলা ও দায়রা জজ মো: মিজানুর রহমান আরো বলেন, দেশের সাধারন মানুষের বিচার পাওয়ার অধিকার আছে। সরকার সাধারণ মানুষের ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে আইনগত কাজে অর্থ সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে। প্রতিটি আদালতে দু’জন করে লিগ্যাল এইডের পক্ষ থেকে আইনজীবি রাখা হবে। প্রতিটি থানার কর্মকর্তাদের তদন্তকাজ সিনিয়র কর্মকর্তাদের তদারকি থাকলে তদন্ত রিপোর্টে ত্র“টি থাকবে না।

    তিনি আরো বলেন, পরিবেশ অধিদপ্তর মামলা করে কিন্তু তদন্ত রির্পোট দেয় না। পরিবেশ, মাদক ও বন বিভাগসহ যারা মামলা করেন মামলার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত কর্মকর্তাদের উচিৎ মামলার সঠিক খোঁজ খবর রাখা। না হলে মামলা জটবারে মামলার ক্ষতি হয়।

    সম্মেলনের ২য় অধিবেশনে বিচারক ও দেওয়ানি মামলার সিনিয়র আইনজীবিদের নিয়ে মামলা জট কমানোর ব্যাপারে আলোচনা হয়।