পে এন্ড সার্ভিসেস কমিশন গঠিতঃপ্রজ্ঞাপন জারি

    0
    272

    আমারসিলেট24ডটকম,২৪নভেম্বর জাতীয় বেতনস্কেলভুক্ত কর্মকর্তা কর্মচারীদের বিভিন্ন ক্যাডার ও বিভাগের বেতন বৈষম্যের বিষয়গুলো চিহ্নিত করে তা সমাধানের জন্য সুপারিশ করতে পে এন্ড সার্ভিসেস কমিশন গঠন করা হয়েছে। সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিনকে এ কমিশনের প্রধান করা হয়েছে। ১৭ সদস্যের এ কমিটি আগামী ৬ মাসের মধ্যে স্থায়ী পে কমিশন গঠনের রূপরেখা চূড়ান্ত করবে। আজ রবিবার অর্থ মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। কমিশনের প্রধান হিসেবে ফরাসউদ্দিন বলেন, দেশের স্বার্থে এ দায়িত্ব নিতে রাজি হয়েছি।উল্লেক্ষ্য,বর্তমানে দেশে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংখ্যা ১৩ লাখ। এর মধ্যে চাকরিতে সক্রিয় আছেন প্রায় ১১ লাখ। এ দিকটি বিবেচনা করে গত মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ২০ শতাংশ মহার্ঘ ভাতার ঘোষণা দেয়ার সময় একটি স্থায়ী পে কমিশন গঠনের পরিকল্পনার কথাও জানিয়েছিলেন। এর আগে সরকার ২০০৭ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় সপ্তম পে কমিশন গঠন করে। এরপর ২০০৯ সালের ১ জুলাই সর্বশেষ সরকারি চাকুরেদের বেতন-ভাতা বাড়ানো হয়।

    ড.ফরাসউদ্দিনের নেতৃত্বে ১৭ সদস্যের এই পে এন্ড সার্ভিসেস কমিশন খুব শিগরিই কাজ শুরু করবে বলে জানা যায়।এ কমিশনে ৩ জন স্থায়ী সদস্য, ১২ জন খণ্ডকালীন সদস্য এবং যুগ্মসচিব পদমর্যাদার একজন সদস্য সচিবের কাজ করবেন। এ কমিশনের সুপারিশের আলোকে ৬ মাস পর স্থায়ী পে কমিশন গঠন করা হবে। তবে ওই সময়ে বর্তমান সরকার থাকবে না। নতুন সরাকারকে তা বাস্তবায়ন করতে হবে।