প্রতিযোগিতামুলক বিশ্ববাজারে বঞ্চিত বাংলাদেশ

    0
    314

    আমারসিলেট 24ডটকম , ২১সেপ্টেম্বর,আবু তাহিরঃ  গত ১৬-১৯ সেপ্টেম্বর প্যারিসের লা বুরজেতে বিশ্বখ্যাত ট্রেড ফেয়ার টেক্সওয়াল্ড অনুষ্টিত হয়।ফ্যাশন সিটি নামে খ্যাত প্যারিসে টেক্সওয়াল্ডের এটি ৩৩ তম মেলা।ফ্যাশন ফেব্রিকস,ট্রিমস এন্ড এক্সসরিজ এর উপর ধারাবাহিক নিয়মঅনু্যায়ী এবার ২৭টি দেশের প্রায় ৮৪০ টি স্টল নিয়ে সফল মেলা সম্পন্ন হয়। পৃথিবীতে গার্মেন্টস শিল্পে ২য় অবস্হানে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ।চীনের সাথে প্রতি্যোগিতা করে বিশ্ব বাজার দখল করতে দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে বাংলাদেশ।প্রায় ৪০ লক্ষ কর্মসংস্হান সৃষ্টিকারি এই শিল্প বর্তমান আধুনিক বিশ্বে বাংলাদেশ কে তুলে ধরেছে ভিন্ন মাত্রা দিয়ে।তার বেশিরভাগই গড়ে উঠছে ব্যাক্তিগত উদ্যোগ থেকে,তার প্রমান হিসাবে প্যারিসের ট্রেড ফেয়ার থেকে ফুটে উঠেছে এক আশ্চ্যর্যজনক চিত্র।

    এ ট্রেড ফেয়ারে যেখানে চীনের ৪১২ টি স্টল অংশগ্রহন করেছে সেখানে বাংলাদেশের মাত্র ১১ টি।বাংলাদেশ থেকে অনেক পিছিয়ে থাকা হংকং ২৬,তুর্কী ৮৮,ইন্ডিয়া ৭২,পাকিস্তান ২৬,সাউথ কোরিয়া ৮১,তাইওয়ান ৫৭,থাইলেন্ডের ৩২ টি স্টল অংশগ্রহন করেছে।উল্লেখ্য যে বাংলাদেশ সরকারের সহযোগিতা ছাড়াই বাংলাদেশের এই ১১টি  স্টল অংশগ্রহন করেছে।
    এ উপলক্ষে টেক্স ওয়াল্ড কতৃপক্ষ আয়োজিত ট্রেড ফেয়ারের হল রুমে এক সেমিনারে বক্তব্য রাখেন ফ্রান্স বাংলাদেশ ইকনোমিক চেম্বার এর সভাপতি ও বাংলাদেশ বিজনেস কনসাল্টিং এর পরিচালক কাজী এনায়েত উল্লাহ। তিনি তার বক্তব্যে বলেন বাংলাদেশের যারা গার্মেন্টস শিল্পের সাথে জড়িত তারা সরকারি বা বেসরকারি ভাবে হলেও এসকল ট্রেড ফেয়ারে অংশগ্রহন করা উচিত।কম সংখ্যক বাংলাদেশী স্টল মেলাতে অংশগ্রহন করাতে তিনি আক্ষেপ প্রকাশ করে বলেন বাংলাদেশ সরকারের উচিৎ এরকম আন্তর্জাতিক ট্রেড ফেয়ারে সরকারি ভাবে বাংলাদেশের এ সম্ভাবনাময় খাত কে তুলে ধরা।

    এটি অত্যন্ত দুঃখজনক যে যেখানে পৃথিবীর গার্মেন্টস শিল্পকে দাপটের সাথে বাংলাদেশ নেতৃ্ত্ব দিয়ে যাচ্ছে,তারপরও এরকম আন্তর্জাতিক ট্রেড ফেয়ারে বাংলাদেশের স্টল অত্যন্ত কম এটা কোনভাবেই কাম্য নয়।প্রতিযোগিতামূলক বাজারে কোম্পানিগুলোর অতিরিক্ত মুনাফার প্রবণতা, অপেশাদারি মনোভাব ও সরকারের নজরদারির দুর্বলতার কারণে বিশ্ববাজারে বাংলাদেশের সুনাম নষ্ট হওক এটা প্রবাসী বাংলাদেশীরা কোনভাবেই চায়না উল্লেখ করে  তিনি আরো বলেন বাংলাদেশ বিজনেস কনসাল্টিং এবং ফ্রান্স বাংলাদেশ ইকনোমিক চেম্বার ভবিষ্যতে এরকম ট্রেড ফেয়ারে বাংলাদেশী স্টল উপস্হাপনার জন্য সরকারের পাশাপাশি কাজ করে যাবে।ট্রেড ফেয়ারের এ সেমিনারে আরো উপস্তিত ছিলেন ইউরোপের বিভিন্ন দেশের সাংবাদিকবৃন্দ,বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা

    ক্রেতা,ডিজাইনার,উদ্যোক্তা সহ ফ্রান্সস্হ বাংলাদেশ দুতাবাস এর বিজনেস কাউন্সিলার ফিরোজ আহমেদ,চ্যানেল ৭১ এর বিজনেস এডিটর কাজী আজিজুল ইসলাম,বাংলাদেশ বিজনেস কনসাল্টিং এর এক্সিকিটিভ ডিরেক্টর জানা মার্টিন,প্রেস পাবলিকশেন,মিডিয়া এক্সিকিটিভ নুরুল ওয়াহিদ,মাসিক নবকন্ঠ সম্পাদক আবু তাহির,ইভেন্ট এক্সিকিউটিভ মাহিন আহমদ,নয়ন মামুন,প্রমুখ।বিশ্বখ্যাত এ ট্রেড ফেয়ারে বাংলাদেশের জাবের এন্ড জুবের ফেব্রিক,পারটেস্ক ডেনিম,এক্সপিরিয়েন্স টেক্সটাইল,চট্ট্রগ্রাম ডেনিম মিলস,বেকস্টেইজ রেডি ওয়ারস,বাংলাদেশ হুটেক্স ডিজাইন,গ্লোরা মারচেন্ডিং,উসিনি ফ্যাশন,টিম এস সি এল,টেক্স ঢাকা বিডি,টেক্স এপরেল,অংশগ্রহন করে।