প্রশাসনিক কর্মকাণ্ড গতিশীল করতে ঢাকাকে ভেঙে ৩বিভাগ

    0
    224

    আমারসিলেট24ডটকম,২৫জানুয়ারীঃ ঢাকা বিভাগের ১৭টি জেলাই সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা। এখানে প্রশাসনিক কার্যক্রম চালানো অনেক কঠিন, তাই একটি নতুন বিভাগ হওয়া উচিত বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্ রীশেখ হাসিনা । প্রধানমন্ত্রী  বলেছেন, প্রশাসনিক কর্মকাণ্ডকে আরও গতিশীল করতে ঢাকাকে ভেঙে ৩টি বিভাগ করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। এ ক্ষেত্রে বৃহত্তর ময়মনসিংহকে নিয়ে নতুন বিভাগ করা হচ্ছে। আজ রবিবার সকালে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে এসে তিনি একথা বলেন।আপাতত ঢাকাকে দুভাগ করে বৃহত্তর ময়মনসিংহকে আমরা বিভাগ করে দিতে পারি। এটা খুব দ্রুত করতে হবে, যত দেরি হবে ততই জটিলতা বাড়বে। প্রশাসনের কার্যক্রমের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বাড়াতে ই-গভর্নেন্স কার্যক্রমকে আরো জোরালো করার কথা জানান প্রধানমন্ত্রী।

    তিনি বলেন, প্রশাসনে কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণকেও এ ক্ষেত্রে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।
    প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জনগণের সুবিধার জন্য প্রশাসনকে বিকেন্দ্রীকরণ করা হচ্ছে। তিনি জনপ্রশাসনের কর্মকর্তা কর্মচারীদের জনসেবার মনোভাব নিয়ে কাজ করে যাওয়ার আহবান জানান। এছাড়া প্রশাসনের শূন্য পদ পূরণের তাগিদ দিয়ে তিনি বলেন, এজন্য পাবলিক সার্ভিস কমিশনে প্রয়োজনে নতুন শাখা খুলে এই প্রক্রিয়া আরো ত্বরান্বিত করা যেতে পারে।
    শেখ হাসিনা আরও বলেন, প্রশাসনে প্রচুর শূন্য পদ রয়েছে গেছে। একদিকে পদোন্নতি হচ্ছে অন্যদিকে কর্মসংস্থান শূন্য হচ্ছে। সেই শূন্য পদগুলো যেন খালি না থাকে, এ অবস্থা থাকা উচিত না। আমাদের পাবলিক সার্ভিস কমিশন যেমন আছে সেই রকমই থাকবে। কিন্তু কয়েকটা শাখা খুলে দেয়া যায়। শিক্ষা, চিকিৎসাসহ কয়েকটি ক্ষেত্রে বেশি নিয়োগ দেয়া হয়। যেমন সামনে আমরা আরো পঞ্চাশ হাজার পুলিশ নিয়োগ দেবো।
    প্রশাসনিক সংস্কারে সরকারের নেয়া পদক্ষেপগুলো তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী জানান, মাঠ প্রশাসনকে আরও শক্তিশালী করতে বৃহত্তর ময়মনসিংহে নতুন বিভাগ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বেসামরিক প্রশাসনের কেন্দ্রবিন্দু জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে গড়ে তুলতে জনপ্রশাসনের ভূমিকার কথা স্মরণ করিয়ে দেন শেখ হাসিনা।