ফিলিস্তিনের ২টি হাসপাতালে ইসরাইলি হামলায় নিহত ৫শতাধিক: ৩দিনের জাতীয় শোক ঘোষণা

0
163

আমার সিলেট ডেস্ক: গাজার মধ্যঞ্চলের আল আহলি আরব হাসপাতালে বোমা হামলায় নিহতদের লাশ আনা হয় পাশে আল–শিফা হাসপাতালে।
ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় একটি হাসপাতালে ইসরায়েলের বোমা হামলায় অন্তত ৫০০ জন নিহত হয়েছেন। অনেকেই হাসপাতালের ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছেন। মঙ্গলবার রাতে মধ্য গাজার আল আহলি আরব হাসপাতালে এই হামলা চালানো হয় বলে গাজার শাসক গোষ্ঠী হামাস জানিয়েছে।

ওই হাসপাতালটিতে ইসরায়েলের হামলায় আহতসহ শত শত রোগী ভর্তি ছিলেন। এ ছাড়া বাস্তুচ্যুত হওয়া অনেক ফিলিস্তিনি সেখানে আশ্রয় নিয়েছিলেন বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে গাজা কর্তৃপক্ষ। হামাসের গণমাধ্যম দপ্তর ইসরায়েলের এই হামলাকে ‘যুদ্ধাপরাধ’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছে।

হাসপাতালে হামলার বিষয়ে ইসরায়েলের সশস্ত্র বাহিনীর মুখপাত্র ড্যানিয়েল হ্যাগেরি বলেছেন, ‘কিছুক্ষণ আগেই হামলার ঘটনাটি ঘটেছে। আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখব!’

এদিকে হাসপাতালে হামলার ঘটনায় তিন দিনের শোক ঘোষণা করেছেন ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। এর আগে গত ১১ দিন ধরে চলা ইসরায়েলি হামলায় গাজায় প্রায় ৩ হাজার মানুষের মৃত্যুর খবর জানিয়েছিল উপত্যকাটির কর্তৃপক্ষ। মৃত্যুর সংখ্যা এখন চার হাজারের কাছাকাছি। অপরদিকে হামলায় আহত হয়েছে অন্তত সাড়ে ১২ হাজার মানুষ একই দিন এর আগে


ইউএনআরডব্লিউএ স্কুলে ইসরায়েলি হামলায় অন্তত ৬ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে

ইউনাইটেড নেশনস রিলিফ অ্যান্ড ওয়ার্কস এজেন্সি ফর প্যালেস্টাইন রিফিউজিস (ইউএনআরডব্লিউএ) দ্বারা পরিচালিত একটি স্কুল কেন্দ্রীয় গাজা উপত্যকার আল-মাগাজি শরণার্থী শিবিরে আঘাত হানলে কমপক্ষে ছয়জন নিহত হয়েছে, জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা বলছে।

ইউএনআরডব্লিউএ কমিশনার-জেনারেল ফিলিপ লাজারিনি এক বিবৃতিতে বলেছেন, “গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বাহিনীর বিমান হামলা ও বোমাবর্ষণের সময় স্কুলটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।”

“কমপক্ষে ৪০০০ মানুষ এই ইউএনআরডব্লিউএ স্কুলের আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে। তাদের যাওয়ার আর কোথাও জায়গা নেই।”