ফেইসবুকে প্রেমের বিয়ের মেহেদীর রং না মুছতেই লাশ নববধু শ্রাবণী

0
523
ফেইসবুকে প্রেমের বিয়ের মেহেদীর রং না মুছতেই লাশ নববধু শ্রাবণী

সুজয় বকসী,জেলা প্রতিনিধি, নড়াইলঃ ফেইসবুকে প্রেম অতপর বিয়ে! মেহেদীর রং মুছতে না মুছতেই বিয়ের তিন মাস পর লাশ হতে হলো নড়াইলের কালিয়ায় নববধু লাবিবা ফারহানা শ্রাবণীকে।
পারিবারিক কলহের কারনে স্বামীর নির্মম নির্যাতনে প্রান দিতে হলো লাবিবা ফারহানা শ্রাবণী নামে এক গৃহবধূকে। মাত্র তিন মাস আগে তার বিয়ে হয়েছিল।
পরিবারের অভিযোগ ফারহানা শ্রাবণী সদ্য প্রকাশিত এসএসসিতে “এ ” পাওয়ায় স্বামী হাসিবুর বিশ্বাসের নির্মম নির্যাতনে নিহত হয়েছে। ঘটনাটি কালিয়া উপজেলার যাদবপুর গ্রামের গতকাল শনিবার (১ জানুয়ারি) বিকেলে শ্রাবণীর স্বামীর বাড়িতে। ঘটনার পর স্বামী হাসিবুর ও পরিবারের সবাই পলাতক রয়েছে।
কালিয়া থানা পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, যাদবপুর গ্রামের হেমায়েত বিশ্বাসের ছেলে হাসিবুরের সাথে খুলনার তেরোখাদা উপজেলার হাঁড়িখালি গ্রামের ফারুক শেখের মেয়ে এসএসসি পরিক্ষার্থী শ্রাবণীর ফেসবুকে প্রেমের বিষয়টি জানাজানির পর উভয় পরিবারের সম্মতিতে মাত্র তিন মাস আগে তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই পারিবারিক খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে হাসিবুর শ্রাবণীকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করত।
পারিবারিক কলহের জের ধরে এবং এসএসসিতে জিপিএ ৫ পাওয়ায় গতকাল শনিবার ২০২২ ইং তারিখ বিকেলে শ্রাবণীকে স্বামী হাসিবুর শারিরীকভাবে নির্যাতন করলে শ্রাবণী জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে অচেতন অবস্থায় শ্রাবণীকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আজ রবিবার ২ জানুয়ারি সকালে লাশের ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।
কালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ কনি মিয়া জানান, এ ঘটনায় নিহতের স্বামীসহ অন্যান্যদের গ্রেফতারের চেষ্টার পাশাপাশি মামলার প্রস্তুতি চলছে। পরিবারের অভিযোগের বিষয়ে ওসি শেখ কনি মিয়া বলেন, এ বিষয়ে তদন্তের পর বিস্তারিত করে জানানো যাবে।