বাংলাদেশকে আমরা হেরে যেতে দিতে পারি নাঃবাদশা

    1
    250

    আমারসিলেট24ডটকম,৩১মেঃবাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা (এমপি)বলেছেন, অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক শিক্ষা ও রাষ্ট্রব্যবস্থার জন্য শহীদজামিল আকতার রতন জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। সেই অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিকশাসনধারা বহু রক্তের বিনিময়ে বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এই শাসনধারাকেব্যাহত করার লক্ষ্যে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। এই ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে দেশকেএগিয়ে নিতে কঠোর মরণপণ সংগ্রাম চালিয়ে যেতে হবে। কারণ অসাম্প্রদায়িকগণতান্ত্রিক শাসনধারা ব্যর্থ হলে বাংলাদেশ এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ব্যর্থহবে। বাংলাদেশকে আমরা হেরে যেতে দিতে পারি না। সরকারের ভিতরেও অনেক আপোসকামী উপাদান আছে, তারা প্রতিপক্ষের ফাঁদে পা দিয়ে সরকারকে ব্যর্থ করেদিতে চায়। এ বিষয়ে সরকারকে সতর্ক থাকতে হবে।

    আজ শহীদ জামিল আকতার রতনের ২৬তম মৃত্যুবার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথিরবক্তব্যে ফজলে হোসেন বাদশা এমপি এ কথা বলেন। অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিকছাত্র আন্দোলনের নেতা, জামাত-শিবিরের খুনিদের হাতে নিহত ছাত্র মৈত্রীরাজশাহী মেডিকেল কলেজ শাখার তৎকালীন সভাপতি শহীদ জামিল আকতার রতনেরস্মরণসভা আয়োজন করে বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর সিমজুমদার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রীরসভাপতি বাপ্পাদিত্য বসু। সভায় বক্তব্য রাখেন ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোসদস্য কমরেড নুর আহমদ বকুল, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সহ সভাপতি ইমাউল হক সরকারটিটু, জাসদ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আলী সাজু।

    সভা পরিচালনাকরেন ছাত্র মৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক তানভীর রুসমত।সভায় বক্তারা জামাত-শিবিরের বিচারের প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রীর বক্তব্যেরসমালোচনা করে বলেন, কোনো ধরনের আপোসের কাছে মাথা নত না করে যুদ্ধাপরাধেরঅভিযোগে জামাত-শিবিরের বিচারকাজ শুরু করার দাবি করেন।