বিএনপি-জামায়াত জোট মিথ্যাচারকে শিল্প হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে : ইনু

    0
    466

    যুদ্ধাপরাধীদের বিচার নিয়ে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বক্তব্যকে প্রহসন বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তথ্যমন্ত্রী খালেদার উদ্দেশে বলেন, “আপনি যুদ্ধাপরাধীদের তালিকা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন। গোলাম আযম, মতিউর রহমান নিজামী, দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীরা যদি যুদ্ধাপরাধী না হন, তাহলে আপনি প্রকৃত যুদ্ধাপরাধীদের তালিকা প্রকাশ করুন।”

    আজ মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ের তথ্য অধিদপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে হাসানুল হক ইনু এ আহ্বান জানান। এ সময় প্রধান তথ্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।
    বেশ কয়েকদিন আগে খালেদা জিয়া বলেছেন, তাঁরা ক্ষমতায় গেলে সব প্রকৃত মানবতাবিরোধী অপরাধীর বিচার করা হবে। খালেদা জিয়ার এই বক্তব্যের কথা উল্লেখ করে ইনু ওই মন্তব্য করেন।
    তথ্যমন্ত্রী অভিযোগ করেন, বিএনপির নেত্রী খালেদা জিয়া ও বিএনপি-জামায়াত জোটের নেতারা প্রতিনিয়ত মিথ্যাচার, গুজব ও তথ্য-সন্ত্রাস করে দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করছেন। তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোট মিথ্যাচারকে একটি স্বতন্ত্র শিল্প হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। তারা যুদ্ধাপরাধের বিচার, ধর্ম, নাস্তিকতা, শাহবাগে গণজাগরণ ও সাম্প্রতিক সহিংসতার ঘটনা নিয়ে একের পর এক মিথ্যাচার চালাচ্ছে। এমনকি ভিটামিন-এ ক্যাপসুল নিয়েও তারা গুজব সৃষ্টি করেছে।
    বিএনপি-জামায়াত ও শিবিরকে এ ধরনের অপপ্রচার, গুজব ও তথ্য-সন্ত্রাস বন্ধের আহ্বান জানিয়ে ইনু বলেন, এসব বন্ধ না হলে দেশবাসী এসব অগণতান্ত্রিক কর্মকাণ্ডের সমুচিত জবাব দেবে।
    শাহবাগের তরুণ প্রজন্ম সম্পর্কে খালেদা জিয়ার বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করে ইনু বলেন, শাহবাগের আন্দোলন একটি স্বতঃস্ফূর্ত অহিংস আন্দোলন। এখানে ধর্মবিরোধী কোনো কর্মকাণ্ড চালানো হচ্ছে না; বরং বিভিন্ন শ্রেণী, বর্ণ ও পেশার মানুষ এখানে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেছে। তিনি খালেদা জিয়াকে প্রশ্ন করেন, ‘টুইটার, ব্লগ ও ফেসবুক যাঁরা ব্যবহার করেন—তারা কি নাস্তিক, তারা কি নষ্ট? আমরা খালেদা জিয়ার কাছে এ বিষয়ে সত্য ভাষণ চাই। আপনি নাস্তিকদের তালিকা প্রকাশ করুন। কিন্তু কাউকে অযথা অপবাদ দেবেন না।’
    বিএনপিতে যাঁরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী, তাঁদের উদ্দেশে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আশা করব, আপনারা সক্রিয় হবেন এবং আপনাদের নেত্রীকে এসব মিথ্যাচার থেকে বিরত করবেন। তা না হলে খালেদা জিয়াকে ত্যাগ করুন।’

    Inu