বিতর্কিত শিক্ষা অফিসারের বদলী বাতিলের দাবীতে মানববন্ধন

    0
    278

    আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৫ফেব্রুয়ারী,শাব্বির এলাহী : সিলেটের বালাগঞ্জের বিতর্কিত উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ারুল ইসলাম শিক্ষকদের তোপের মুখে বুধবারও মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে যোগদান করতে পারেননি। বুধবার দুপুর থেকে উপজেলা পরিষদের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিতে থাকেন শিক্ষকরা। বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি কমলগঞ্জ উপজেলা শাখার আহবানে দুপুরে এক মানববন্ধন ও অবস্থান ধর্মঘট কর্মসুচী পালিত হয়।

    এসব কর্মসুচীতে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠন সহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজন একাতœতা প্রকাশ করেন। কমলগঞ্জ উপজেলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অসমঞ্জু প্রসাদ রায় চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মো. ফয়ছল আল কয়েছ চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত কর্মসুচীতে একাতœতা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পারভীন আক্তার লিলি, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল মুনিম তরফদার, আলীনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা, রহিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ বদরুল, আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান সাব্বির আহমদ ভূঁইয়া, পতনঊষার ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম আহমদ চৌধুরী, কমলগঞ্জ পৌর যুবলীগ সভাপতি মো. জুয়েল আহমদ প্রমুখ।

    এছাড়া শিক্ষকদের কর্মসুচীর প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন সাবেক চিফ হুইপ ও স্থানীয় সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম, মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, উপজেলা বিআরডিবি চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল, মুন্সীবাজার ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালিব তরফদার, শমশেরনগর ইউপি চেয়ারম্যান মো. জুয়েল আহমদ, উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অশোক বিজয় দেব কাজল, রহিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি জুনেল আহমদ তরফদার প্রমুখ। মানববন্ধন ও অবস্থান ধর্মঘট থেকে শিক্ষক নেতারা বলেন, বিতর্কিত উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ারুল ইসলামকে কমলগঞ্জ থেকে বদলীর আদেশ প্রত্যাহার না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে। কোন অবস্থাতেই এই শিক্ষা অফিসারকে কমলগঞ্জে ঢুকতে দেয়া হবে না।
    এদিকে আজ বৃহষ্পতিবার (২৬ ফেব্রয়ারি) বিকাল ৩টায় কমলগঞ্জ উপজেলা অফিসের সামনে কমলগঞ্জ উপজেলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির ডাকে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এতে মৌলভীবাজার জেলা সকল উপজেলা থেকে শিক্ষক নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করবেন।
    প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর এর পরিচালক (প্রশাসন) গত ২২ ফেব্র“য়ারি এক আদেশে সিলেটের বালাগঞ্জ থেকে কমলগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার হিসেবে বদলী করেন মো. আনোয়ারুল ইসলামকে। ২৩ ফেব্রুয়ারি তার কমলগঞ্জ উপজেলায় যোগদান করার কথা ছিল। কিন্তু শিক্ষকদের তোপের মুখে তিনি কমলগঞ্জ উপজেলায় যোগদান করতে পারছেন না।
    মৌলভীবাজার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার পঞ্চানন বালা বুধবার বিকেলে আলাপকালে এ প্রতিনিধিকে বলেন, গত ২৩ ফেব্রুয়ারি কমলগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে যোগদান করেন মো. আনোয়ারুল ইসলাম। কিন্তু শিক্ষকদের আন্দোলনের ফলে তিনি কমলগঞ্জে যোগদান করতে পারছেন না। বিষয়টি উর্ধ্বতন কতৃপক্ষ দেখবেন।
    উলে¬খ্য, গত ২৫ জানুয়ারি সিলেটের বালাগঞ্জ থেকে মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলায় বদলী হয়ে নতুন কর্মস্থলে যোগদান করতে আসলে শিক্ষকদের প্রতিরোধে তোপের মুখে সেখানে যোগদান না করেই ফিরে গেলেন বিতর্কিত উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ারুল ইসলাম।