বিরাজমান পরিস্থিতিতে বর্তমান সরকার সতর্ক:এম.এ.মান্নান

    0
    211

    আমারসিলেট24ডটকম,২৩জানুয়ারীঃ বর্তমান প্রজন্মের মেধাবী শিক্ষাথীরাই বাংলাদেশের ভবিষৎ কর্ণদ্বার। পৃথিবীর বুকে মধ্যম আয়ের দেশ প্রতিষ্ঠিত করতে বর্তমান সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। সুনামগঞ্জ জেলার শিক্ষার উন্নয়নে বর্তমান সরকারের সু-দৃষ্টি রয়েছে। মেডিকেল কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে আমার প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। সুনামগঞ্জ জেলার সঙ্গে দেশের বিভিন্ন এলাকার যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হয়েছে।

    ইতিমধ্যে সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর-রানীগঞ্জ-ইনাতগঞ্জ সংযোগ সড়কের রানীগঞ্জের কুশিয়ারা নদীতে একশ বত্রিশ কোটি টাকা পাশ হয়েছে। তাছাড়া দিরাই শাল্লার ডুবন্ত সড়ক, দিরাই কুশনপুর- কলকলিয়া সংযোগ সড়কের কুশনপুর নদীতে ব্রীজ তৈরির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সুনামগঞ্জ এর সঙ্গে মোহনগঞ্জ হয়ে ঢাকার সঙ্গে সড়ক যোগাযোগের প্রক্রিয়া চলছে। ইতিমধ্যে সিলেট সুনামগঞ্জের ১৬টি ব্রিজের কাজ সমাপ্ত হচ্ছে। আজকের সংবর্ধীত শিক্ষার্থীরা আগামী বাংলাদেশ গঠনে বলিষ্ট ভুমিকা রাখবে।

    আসন্ন এস.এস.সি পরীক্ষার কথা বিবেচনা করে জ্বালাও পোড়াও রাজনীতি পরিহার করে সুষ্ট ধারার রাজনীতিতে মনোনিবেশ করার আহবান জানান। বর্তমান সরকার সকল ক্ষেত্রে সাফল্যর ধারাবাহিকতায় শিক্ষার ক্ষেত্রে যোগপযোগী বিপ্লব সাধন করেছে। দেশের টানে মাটির টানে আমরা যে যে অবস্থানে থাকি না কেন সুনামগঞ্জ জেলার যে কোন সমস্যা সমাধানে আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ।

    পাশাপাশি সারা দেশেই আমার উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেত্বত্বে দেশ যখন মধ্যম আয়ের রাষ্ট্রে পরিনত হতে যাচ্ছে, ঠিক তখনই অপ রাজনীতি হরতাল অবরোধের নামে নিরিহ মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে। দেশের বিরাজমান পরিস্থিতিতে বর্তমান সরকার যে কোন পরিস্থিতির মোকাবেলায় সদা সতর্ক রয়েছে।

    গতকাল সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে বিকাল ৩ টায় সুনামগঞ্জ সমিতি সিলেটের এস.এস.সি পরীক্ষায় জি.পি.এ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এম.এ.মান্নান এম.পি এ কথা বলেন। সুনামগঞ্জ সমিতির সভাপতি এডভোকেট রাজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক দিলওয়ার হোসেন বাবর ও অধ্যাপক কাশমীর রেজার যৌথ পরিচালনায় প্রধান অতিথি বলেন-বর্তমান সরকার শিক্ষার্থীদের বিভিন্নভাবে সহযোগীতা করছে।

    দেশের অর্থনীতিক মেরুদন্ড টিকিয়ে রাখতে আজকের শিক্ষার্থীদের কর্মীর হাত হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে হবে। আজকের সংবর্ধনা ভবিষৎ গড়তে তোমাদের পাতেয় হয়ে থাকবে। ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আকমল হোসেনের কোরআন তেলাওত ও অধ্যাপক প্রতাপ চৌধুরী গীতা পাঠের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংবধনা কমিটির আহবায়ক অধ্যক্ষ সৈয়দ মুহাদ্দিছ আহমদ।

    অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট শিক্ষা বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এ.কে.এম গোলাম কিবরিয়া তাপাদার, সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ সমিতির প্রতিষ্টাতা সভাপতি ও উপদেষ্টা অধ্যক্ষ ডা: এম.এ.রকিব, এম.সি কলেজের উপাদক্ষ হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জি, জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা মতিউর রহমান, উপদেষ্ঠা এম.এ.মান্নান, উপদেষ্ঠা অধ্যক্ষ আখলাকুর রহমান, উপদেষ্ঠা সিরাজুল ইসলাম, উপদেষ্টা ব্যারিষ্টার আরশ আলী, উপদেষ্টা আলহাজ্ব আবুল বশর, সহ-সভাপতি আরিফ মিয়া, এড: নাজিম উদ্দিন, ফয়ছল রাজা চৌধুরী, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আকমল হোসেন, এড: শহিদুজ্জামান চৌধুরী, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ছানাউর আলী, সভায় বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন।

    যুগ্ম সম্পাদক আলাউদ্দিন আহমদ মুক্তা, অধ্যাপক ছাব্বির আহমদ, সৈয়দ বদরুল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান হোসেন চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান ও পিযুষ রঞ্জন পুরকায়স্থ টিটু, জিল্লুর রহমান, মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী, মানবাধিকার কর্মী দিলওয়ার হোসেন খান, প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন, আবুল হোসেন, আবুল কালাম, আলিম উদ্দিন, উস্তার আলী প্রমুখ। প্রধান অতিথিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান উপদেষ্টা আলহাজ্ব আবুল বশর। বিশেষ অতিথিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান সাংঘঠনিক সম্পাদক এমরান হোসেন চৌধুরী, মিজানুর রহমান ও পিযুষ রঞ্জন পুরকায়স্থ টিটু।

    অনুষ্ঠান উপলক্ষে আমিরুল ইসলাম চৌধুরী এহিয়া সম্পাদিত ভাটির কথা সংকলনের মোড়ক উন্মোচন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম.এ.মান্নান। প্রধান অতিথিকে ক্রেষ্ট প্রধান করেন সমিতির সভাপতি এড: রাজ উদ্দিন, বিশেষ অতিথি শিক্ষাবোর্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এ.কে.এম গোলাম কিবরিয়া তাপাদার কে ক্রেষ্ট প্রধান করেন সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যক্ষ ডা: এম.এ.রকিব। সংবর্ধীত ১০৩ জন শিক্ষার্থীকে ক্রেষ্ট ও সম্মাননা প্রদান করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি অথ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রি এম.এ.মান্নান।