বেশিরভাগ দর্শক পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের পছন্দ করে না

    0
    291

    আমারসিলেট24ডটকম,২৫ডিসেম্বরঃ টি-২০ ফ্র্যাঞ্জাইজিগুলোর নিরাপত্তা শংকার কারণেই আকর্ষণীয় ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) তার দেশের খেলোয়াড়দের অংশগ্রহণ সম্ভব হয়নি বলে স্বীকার করলেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) প্রধান শাহরিয়ার খান।

    খান জানান, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড(বিসিসিআই) কর্মকর্তারা তাকে স্পস্ট করে বলেছেন যে, ২০০৯ সাল থেকে আইপিএলে পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের অংশগ্রহণের বিষয়ে তাদের কোনো ভূমিকা নেই।

    করাচিতে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘ভারতীয় বোর্ড বলেছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো চায় মাঠে দর্শক টানতে শহিদ আফ্রিদির মতো খেলোয়াড়রা দলে থাকুক। কিন্তু নিরাপত্তা শংকার কারণে তারা পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের দলে রাখতে পারছে না।’

    তিনি বলেন, ‘ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর শংকা হলো ভারতে বেশিরভাগ দর্শক পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের পছন্দ করে না এবং আইপিএলে পাকিস্তানি খেলোয়াড়রা অংশ নিলে নিরাপত্তা নিয়ে তারা শংকিত।’

    সম্প্রতি পাকিস্তান- ভারতীয় হকি এবং কাবাডি দলের মধ্যে কিছু সংঘর্ষ হওয়ায় ক্রিকেটীয় সম্পর্কেও প্রভাব পড়বে কিনা- প্রশ্নেরও জবাব দেন তিনি।

    তিনি বলেন, ‘এমনকি কুটনৈতিক ও রাজনৈতিক উত্তেজনা সত্বেও পাকিস্তা-ভারত ক্রিকেট বোর্ড সব সময়ই আন্তরিকতার পরিচয় দেয় এবং আশা করছি সেভাবেই এটা অব্যাহত থাকবে। তবে কাবাডি ও হকিতে দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা ঘটেছে এবং এটা এড়ানো যেত।’

    খান বলে কোনো প্রকার ক্রীড়ায়ই এমন ধরনের ভুল বুঝাবুঝি এবং খারাপ সম্পর্ক দুই দেশের কেউই চায় না।

    তিনি বলেন, ‘এমন ঘটনায় ভারতের দর্শক ও গণমাধ্যমে খুব খারাপ প্রতিক্রিয়া দেখেছি এবং আমার দৃষ্টিতে এ কারণেই খুব শিগগিরই আমাদের খেলোয়ড়রা আইপিএলে খেলতে পারবে না।’

    ভারতীয় বোর্ডের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী আগামী বছর থেকে দ্বিপাক্ষিক সিরিজের বিষয়ে তিনি আত্মবিশ্বাসী বলে উল্লেখ করেন পিসিবি প্রধান।

    তিনি বলেন, সত্যি কথা বলতে গেলে সব কিছুই নির্ভর করবে সে সময়ে উভয় দেশের সম্পর্ক কেমন থাকে তার ওপর। সুতরাং চুক্তি অনুযায়ী আগামী বছর থেকে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ শুরু হবে আমরা কেবল এটাই আশা করতে পারি।সুত্রঃওয়েবসাইট।