ব্যালেস্টিক মিসাইল বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে ইসরাইল

    0
    235

    আমারসিলেটটোয়েন্টিফোর.কম ০৩ সেপ্টেম্বর  : সিরিয়ার ভূমধ্যসাগরের পূর্ব উপকূল অভিমুখে ব্যালেস্টিক মিসাইল বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে ইসরাইল। ইসরাইলের কর্মকর্তারা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যৌথভাবে পরীক্ষামূলক এ হামলার কথা নিশ্চিত করেছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পূর্ব ভূমধ্যসাগরের উপকূলীয় এলাকার দিক থেকে আসা দুটি মিসাইল নিক্ষেপণ শনাক্ত করেছে বলে ঘোষণা করার পর ইসরাইলের কর্মকর্তারা মিসাইল নিক্ষেপের কথা স্বীকার করে।

    ইসরাইলের সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সকাল সোয়া ৯ টায় ইসরাইলের ইসরাইলের কেন্দ্রস্থল ও একইসঙ্গে ভূমধ্যসাগরের ঘাঁটি থেকে ক্ষেপণাস্ত্রগুলোর নিক্ষেপ পরিচালনা করা হয়। প্রায় একইসময় রাশিয়ার রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদ সংস্থা রিয়া মিসাইল নিক্ষেপের খবর জানায়। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় রিয়ার বরাত দিয়ে জানিয়েছে, মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ১৬ মিনিটে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এর আগে রাশিয়া তার রাডার সিস্টেমের মাধ্যমে এ ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছিল।

    এর আগে ইসরাইলের সেনাবাহিনী জানিয়েছে, ভূমধ্যসাগরে মিসাইল নিক্ষেপের ঘটনার ব্যাপারে তারা ‘জানে না’ বলে অস্বীকার করে। তবে পরে তারা নিশ্চিত করে, ভূমধ্যেসাগরে ইসরাইলের হেৎজ মিসাইল বিধ্বংসী ব্যবস্থার অংশ হিসেবে একটি এ্যারো-২ বিএমডি পরীক্ষা চালায় দেশটির সেনাবাহিনী। স্বল্প পাল্লার রকেট বিধ্বংসী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা হিসেবে আইরন ডোম সিস্টেমের সঙ্গে সঙ্গে ব্যালেস্টিক মিসাইল বিধ্বংসী ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে ইসরাইল। যেটি ইসরাইল ও যুক্তরাষ্ট্রের একটি যৌথ প্রকল্প। এ হামলার পর সিরিয়া সংঘাত নিয়ে তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। ইতোমধ্যে রাশিয়া ইসরাইলকে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছে।