মাদ্রিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে মহান শহিদ দিবস উদযাপন

0
499
মাদ্রিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে মহান শহিদ দিবস উদযাপন
মাদ্রিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে মহান শহিদ দিবস উদযাপন

হোসাইন ইকবাল,স্পেন থেকে: মাদ্রিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস দুটি  ভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যদিয়ে  যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন করেছে।

২১ ফেব্রুয়ারী সকালে দূতাবাস প্রাঙ্গণে রাষ্ট্রদূত কর্তৃক জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করার মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়।

দূতাবাসের সকল সদস্যের উপস্থিতিতে দূতাবাস প্রাঙ্গনে মান্যবর রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ, এনডিসি সকালে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরনের মধ্য দিয়ে কর্মসূচী শুরু করেন। পরে দূতাবাস মিলনায়তনে পবিত্র কোরআন থেকে তিলওয়াতের মাধ্যমে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করে শোনানো হয় এবং একটি প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়।

সন্ধ্যায় CASA ASIA (কাসা এশিয়া)  সম্মেলন কক্ষে বিভিন্ন দেশের কূটনীতিক, স্প্যানিশ পদস্থ কর্মকর্তা, স্পেইন এর Complutense Rey Juan Carlos বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক বৃন্দ এবং প্রবাসী বাংলাদেশীদের উপস্থিতিতে এক বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠান ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

আলোচনা সভায় মান্যবর রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ, এনডিসি স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আত্মোৎসর্গকারী বীর শহিদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তিনি বলেন আমাদের বাংলা ভাষা বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম ভাষা। প্রায় ২৫০ মিলিয়ন মানুষ এ ভাষায় কথা বলে। চীনা, স্প্যানিশ ও ইংরেজীর পরই এর স্থান।

বাংলাদেশ ছাড়া বাংলা আরও কয়েকটি অ লে সরকারী ভাষা হিসেবে স্বীকৃত। অ লগুলো হল ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা, আসামের আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ। বাংলা ভাষা বাংলাদেশের একমাত্র স্বীকৃত রাষ্ট্রভাষা। এছাড়াও ভারতীয় সংবিধান দ্বারা স্বীকৃত ২৩ টি সরকারী ভাষার মধ্যে বাংলা অন্যতম। এছাড়া আফ্রিকার সিয়েরা লিয়নের দ্বিতীয় সরকারী ভাষা বাংলা।

স্পেনে প্রবাসী বাংলাদেশীদেরকে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জাননিয়ে  তিনি উল্লেখ করেন যে, জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবায়নের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদূর প্রসারী নেতৃত্বে সরকার “ভিশন-২০২১”, “ভিশন-২০৪১” এবং “ব-দ্বীপ পরিকল্পনা ২১০০” গ্রহণ করেছে এবং বাংলাদেশ দৃঢ় প্রত্যয়ে অভীষ্ট লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছে। ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশ ইতোমধ্যে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা অর্জন করেছে। তিনি মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে সবাইকে দেশ গড়ার কাজে আত্মনিয়োগের আহবান জানান।

আলোচনা সভায় স্পেন প্রবাসী বাংলাদেশী বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক দলের ও সাংবাদিক প্রতিনিধিবৃন্দ এবং দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি, দেশাত্ববোধক গান ও নৃত্য পরিবেশন করা হয় এবং অতিথিদেরকে রাতের খাবারে আপ্যায়ন করা হয়।

শেষে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শাহাদাত বরণকারী সকল শহিদের রুহের মাগফিরাত এবং দেশের সুখ, সমৃদ্ধি ও উন্নতি কামনায় মোনাজাত করা হয়।