মাধবপুরে কুপিয়ে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও শোকসভা

    0
    266

    হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার নোয়াপাড়া চা বাগানের চা শ্রমিক সুজিত রেলী কে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে চা শ্রমিকরা। ৩০ আগস্ট শুক্রবার সকাল ১১টায় নোয়াপাড়া চা বাগানে চা শ্রমিকরা অর্ধদিবস কর্মবিরতি দিয়ে এ মানববন্ধন ও শোকসভা করেছেন।

    এসময় বক্তব্য রাখেন – মেম্বার দুলাল বোশ, সাবেক মেম্বার নারঙ্গী, মহিলা মেম্বার মীরা কইরি, পঞ্চায়েত প্রধান কেমট নায়েক, অজিত বিশ্বাস চাষা, শ্রাবন শাওতাল, শ্যামল ব্যানার্জী, ধিরা নায়েক, ইকবাল পাঠান, কেনু নায়েক, অর্জুন তেলেঙ্গা, অমল রেলী, বাবু রেলী, বিচিত্র রেলী, লেবিও,  সুজয় লাল নায়েক প্রমুখ।

    বক্তারা বলেন- অবিলম্বে ঘটনার মূল হোতা হেলাল রেলী সহ সকল আসামীদের গ্রেপ্তার ও সঠিক বিচারের দাবি জানিয়ে। মাধবপুর থানা এসআই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আবুল কাশেম নিহতের পরিবার কে শান্তনা দিয়ে বলেন – আসামিরা যতোই শক্তিশালী হোকনা কেন তাদেরকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে। এবিষয়ে নিহতের ছেলে ধনু রেলী ও স্ত্রী আরতি র‌্যালী জানান – বিগত ১৯ আগষ্ট ২০১৯ ইং তারিখে সকালে একটি দোকানে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে আমি সহ ৫/৬ জনকে মারধর করে হেলাল রেলী সহ তার কতিপয় লোকজন।

    ওইদিন বিকাল হেলাল বাহিনীর ১০/১২জনের একটি সদস্য দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমার বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় আমার পিতা সুজিত রেলীকে কুপিয়ে হত্যা করে তারা।  আমি এব্যাপারে মাধবপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করি। মামলার প্রেক্ষিতে মাধবপুর থানা পুলিশ ১১ জনকে গ্রেপ্তার করে হবিগঞ্জ জেলা আদালতে প্রেরণ করেছেন। অপরদিকে ঘটনার মূল আসামী হেলাল রেলী, সেলিম রেলী ও সহদেব রেলী গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করছে কিন্তু পুলিশ তাদেরকে গ্রেপ্তার করতেছে না। যার কারণে আতঙ্কিত আমার পরিবারের সদস্যরা।