মানবতাবিরোধী অপরাধ : শুনানীর জন্য সাঈদীর আপিল কার্যতালিকায়

    0
    455

    ঢাকা, ০২ মে : ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের নায়েবে আমীর দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মামলার রায়ের বিরুদ্ধে আপিল আবেদন শুনানীর জন্য সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। আজ ২ মে বৃহস্পতিবারের জন্য আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় আবেদনটি ৩১ নম্বরে রয়েছে। প্রধান বিচারপতি মো. মোজ্জাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের ৬ সদস্যের বেঞ্চ গত ১৮ এপ্রিল সাঈদীর মামলায় আনা আপিল আবেদন শুনানীর জন্য আজ ২ মে শুনানী শুরুর তারিখ ধার্য করে। বেঞ্চের অপর পাঁচ বিচারক হলেন- বিচারপতি এস কে সিনহা, বিচারপতি আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞা, বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, বিচারপতি ছিদ্দিকুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী। এ সময়ের মধ্যে উভয়পক্ষকে মামলার সার সংক্ষেপ দাখিল করতে বলা হয়। সে অনুযায়ী সার সংক্ষেপ জমা দেয়া হয়েছে। শুনানীর তারিখ ধার্য করার আবেদন জানিয়েছিলেন এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।
    দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মামলার রায়ের বিরুদ্ধে আপিল নিয়ে মানবতাবিরোধী অপরাধের দ্বিতীয় মামলা আপিল বিভাগে শুনানীর জন্য প্রস্তুত হয়েছে। বর্তমানে জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লার মামলায় রায়ের বিরুদ্ধে উভয়পক্ষের দায়ের করা পৃথক দুটি আপিলের ওপর আপিল বিভাগে শুনানী অব্যাহত রয়েছে। এর মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষের বক্তব্য উপস্থাপন করা হয়েছে। আসামীপক্ষ তাদের বক্তব্য উপস্থাপন শুরু করেছে। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ এ গত ৫ ফেব্রুয়ারি দেয়া রায়ে কাদের মোল্লাকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়ে রায় ঘোষনা করা হয়। এ রায়ের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ ও কাদের মোল্লা পৃথক আপিল দায়ের করে। মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত সাঈদীর মামলার রায়ের বিরুদ্ধে আসামী ও রাষ্ট্রপক্ষ গত ২৮ মার্চ আপিল দায়ের করে।
    আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ ঘোষিত রায়ে যেসব অভিযোগে সাঈদীর শাস্তি হয়নি সে অভিযোগগুলোর বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষ আপিল করেছে। এডভোকেট অন রেকর্ড সৈয়দ মাহবুবার রহমান সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগে এ আপিল দায়ের করে। রাষ্ট্রপক্ষের আপিলের মূল আবেদন ২০২ পৃষ্ঠায় উল্লেখ করা হয়েছে। যেসব অভিযোগ প্রমাণিত হলেও সাঈদীকে ট্রাইব্যুনালের রায়ে শাস্তি দেয়া হয়নি, সেসব অভিযোগে শাস্তির আরজি জানিয়ে এবং বাকি অভিযোগগুলোকে চ্যালেঞ্জ করে এ আপিল করা হয়েছে বলে জানান রাষ্ট্রপক্ষে সংশ্লিষ্ট আইনজীবীরা।
    এর আগে একইদিন আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় সাঈদীর ফাঁসির আদেশ থেকে খালাস চেয়ে আপিল আবেদন জমা দেয় আসামীপক্ষ। সুপ্রিমকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এডভোকেট অন রেকর্ড জয়নুল আবেদন তুহিন আসামী সাঈদীর পক্ষে আপিলটি দায়ের করেন। মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় গত ২৮ ফেব্রুয়ারি সাঈদীকে মৃত্যুদন্ড দিয়ে ট্রাইব্যুনাল-১এ প্রথম রায় ঘোষণা করা হয়। ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীরের নেতৃত্বে বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি আনোয়ারুল হকের সমন্বয়ে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল এ রায় ঘোষণা করে।